গসিপবিনোদনসিনেমা

সালমানের মেজাজের সামনে টিকতে পারে না কেউ! অথচ এই ৪ অভিনেতার সামনে টুঁ শব্দ করেন না ভাইজান

বলিউডের মোস্ট এলিজেবল ব্যাচেলর হলেন সালমান খান। ভক্তরা ভালোবেসে তাকে ভাইজান বলে সম্বোধন করে থাকেন। সিনেমা থেকে ব্যক্তিগত জীবন সালমানকে নিয়ে ভক্তদের আগ্রহের শেষ নেই তবে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে তিনি এমন একজন অভিনেতা যার পরিচয় তিনি নিজে সালমান খান নামটাই আসলে একটা ব্রান্ড তাই আলাদা করে ভাইজানের পরিচয় দেওয়ার কিছুরই প্রয়োজন নেই

ইন্ডাস্ট্রিতে সালামান ভাইয়ের মেজাজের কথা কম বেশি সকলেই জানেন। একবার তার মেজাজ বিগড়ে গেলে গায়ে হাত তুলতেও দ্বিধা করেন না ভাইজান। ইতিপূর্বে এমন অনেক ঘটনাই নজরে এসেছে সকলের। তাই তার সামনে কোন মন্তব্য করার আগে সকালে অত্যন্ত দুবার ভাবেন। তাই ইন্ডাস্ট্রিতে অনেকেই সাল্লু মিঞাকে ভয় পেয়ে থাকেন। তবে বিনোদন জগতে এমনও কয়েকজন অভিনেতা রয়েছেন যাদের দেখে মাথা নত করেন সালমান নিজে। আজ বং ট্রেন্ডের পাতায় থাকল এমনই ৪ জন বিখ্যাত ব্যক্তির পরিচয়।

১) অমিতাভ বচ্চন (Amitabh Bachchan)


বলিউড শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চন এর সাথে কাজ করা যে কোনো অভিনেতার কাছে স্বপ্নের মতো। নতুন-পুরনো সকল প্রজন্মের অভিনেতা অভিনেত্রীদের কাছেই তিনি অনুপ্রেরণা। তাঁর সাথে কাজ করতে আগ্রহী বলিউড সুপারস্টার দের মধ্যে অন্যতম একজন হলেন সালমান খান। সালমানের অত্যন্ত পছন্দের একজন তারকাদের মধ্যে অন্যতম হলেন অমিতাভ বচ্চন। তাঁর প্রতি শ্রদ্ধায় বরাবরই সালমানের মাথা নতুন হয়ে আসে। দীর্ঘ অভিনয় জীবনে দুজনে একসাথে অনেক সিনেমাতেই কাজ করেছেন। তাদের মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় একটি সিনেমা হল ‘বগবান’ এই সিনেমায় অমিতাভ বচ্চন সালমান খানের বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। সিনেমাটির মধ্যে তারা দুজনেই বাবা ছেলের কেমিস্ট্রি অত্যন্ত সুন্দর ভাবে ফুটিয়ে তুলেছিলেন। প্রসঙ্গত সিনেমার মতোই বাস্তবেও অমিতাভ বচ্চন সালমান কে নিজের ছেলের মতোই স্নেহ করেন।

২) মিঠুন চক্রবর্তী (Mithun Chakraborty)

বলিউডের চুলবুল পান্ডে সালমান খান মিঠুন চক্রবর্তীকে দাদা বলে সম্বোধন করে থাকেন। একথা সকলেই জানেন ইন্ডাস্ট্রিতে সালমান ঘনিষ্ঠদের মধ্যে অন্যতম একজন হলেন মিঠুন চক্রবর্তী। তাঁরা দুজন জুটি বেঁধে একাধিক সিনেমাতে একসাথে কাজ করেছেন । আর বেশিরভাগ সিনেমাতেই মিঠুন সালমান খানের বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছেন। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী একবার এক সাক্ষাৎকারে সালমান নিজে থেকেই মিঠুন চক্রবর্তীর সাথে কাজ করতে চেয়েছিলেন। আর মিঠুন চক্রবর্তীকে সালমান বরাবরই নিজের আইডল হিসেবে মনে করেছিলেন।

৩) ধর্মেন্দ্র (Dharmendra)

এই তালিকায় রয়েছেন বলিউডের বীরু স্বয়ং ধর্মেন্দ্র জি। বর্ষীয়ান এই অভিনেতাকেও অত্যন্ত সম্মানের চোখে দেখেন সালমান খান। এমনকি এই বর্ষীয়ান অভিনেতা কে সালমান নিজের বাবার মতোই সম্মান দিয়ে থাকেন। আর একথা জানার পর নিঃসন্দেহে অত্যন্ত খূশি হবেন ধর্মেন্দ্র ভক্তরা।

৪) রজনীকান্ত (Rajinikanth)


দক্ষিণী সুপার স্টার রজনীকান্তের জনপ্রিয়তা নিয়ে নতুন করে আর কি বলব! সাউথের ভক্তদের কাছে রাজনীকান্ত মানেই ভগবান। সাউথের এমন অনেক জায়গা আছে যেখানে রজনীকান্তের মূর্তি পুজা পর্যন্ত হয়। ভক্তদের কাছে অভিনেতা থালাইভা বলেই পরিচিত। তবে শুধু সাউথের সিনেমাই নয় রাজনীকান্ত বলিউডেও একাধিক সিনেমায় কাজ করেছেন। আর এই কারনেই বলিউডের ভাইজান সালমান খান তাঁকে এতটা পছন্দ করেন। রাজনীকান্তকে দেখে সালমান খান নিজে এতটাই অনুপ্রাণিত হয়েছেন যে তিনি রজনীকান্তের মতোই অ্যাকশন করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। ভাইজান যেমন রাজনিকান্তকে অত্যন্ত শ্রদ্ধা করেন তেমনই রাজনিকান্তেরও অত্যন্ত কাছের একজন মানুষ হলেন সালমান খান।

Related Articles

Back to top button