বিনোদন

প্যান্টের চেইন খোলাও ফ্যাশন! মুসলিম বলেই পোশাক নিয়ে কটাক্ষ করা হয় তাকে ক্ষোভ উরফির

বিগবসে প্রতিযোগী হিসেবে এলে যাদের কেউ চিনতো না তারাও রাতারাতি তারকা হয়ে যান। বিগবস ওটিটি-তে (Bigg Boss) আসার পর থেকেই পেজ থ্রির শিরোনামে বারং বার উঠে এসেছে উরফি জাভেদের (Urfi Javed) নাম। ঠোঁট কাটা এই অভিনেত্রীর কিছুদিন আগেই বাদ পড়েছেন বিগবস থেকে। একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্য তাকে কুখ্যাত করে তুলেছিল।

উরফির সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ রাখলেই বোঝা যায় যে তিনি বেশ সাহসী অবতারেই ক্যামেরার সামনে ধরা দিয়ে থাকেন৷ তার বোল্ড পোশাকের ফাঁক দিয়ে টানটান ফিগার, সুঠাম বক্ষ বিভাজিকা, গভীর নাভি-র স্বাদ পেয়ে থাকেন অনুরাগীরা। বিগ বসের ঘরে গিয়েই নিজের বোল্ড আউটফিট দিয়ে নজর কেড়েছিলেন উরফি, কিন্তু তবুও বিগবসের ঘরে সবার আগে সফর শেষ হয় তারই।

সম্প্রতি ফের লাইম লাইট কেড়েছেন উরফি। এবং এবারেও নিজের অদ্ভুত পোশাকের কারণে। গত কয়েকদিন আগেই মুম্বই বিমানবন্দরে পাপারাৎজির ক‍্যামেরাবন্দি হন তিনি, যেখানে তার পোশাকের ছিরি দেখে চোখ কপালে ওঠার জোগাড় হয়েছিল নেটিজেনদের। এতদিন পর্যন্ত আমরা জানতাম পোশাক পরা হয় অঙ্গ ঢাকতে, কিন্তু উরফি পুরো উল্টোপূরাণ।

দিন কয়েক আগে ডেনিম জিন্স এবং ডেনিম জ্যাকেটে এয়ারপোর্টে দেখা মিলেছিল অভিনেত্রীর, যেখানে তার জ্যাকেটের নীচ দিয়ে স্পষ্ট দেখা গিয়েছিল অন্তর্বাস পরিহিত তার দুই বক্ষযুগল। এদিন প্যান্টের বোতাম খোলা অবস্থাতেই পাপারাজ্জিদের ক্যামেরায় পোজ দেন উরফি। পোশাকের কারণে বারংবারই সমালোচনার সম্মুখীন হতে হয় অভিনেত্রীকে।

এবার এই কটাক্ষের বিরুদ্ধে মুখ খুলে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন উরফি। তার মতে, তিনি মুসলিম বলেই তাঁর পোশাক নিয়ে এত কটাক্ষ করা হয়। গণেশ আরতির সময় উরফি পরেছিলেন একটি ফিনফিনে কুর্তি। তা নিয়েও যথেষ্ট কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছিল অভিনেত্রীকে। এক্ষেত্রে উরফির দাবি , ‘বিকিনি বা শর্ট স্কার্ট পরে তো যাইনি। সাধারণ কুর্তি পরেছিলাম। আমি বুঝে গিয়েছি, আমি যা করব তা নিয়েই কথা হবে।’

সঙ্গে উরফি জানিয়েছেন, তিনি রক্ষণশীল মুসলিম পরিবারের সন্তান বলে বহু বছর নিজের পছন্দমতো পোশাক পরতে পারেননি। জিনস পরায় না ছিল। বুক ঢাকতে হতো ওড়নায়। তাই উরফির সাফ কথা, পোশাকের ব্যাপারে তিনি আর কোনও বাধা মানবেন না। এবং তিনি আরও জানান যে দৃষ্টি আকর্ষণ করা তার কাছে কোনোও ভুল নয়।

Related Articles

Back to top button