গসিপছবিবিনোদনসিনেমা

অভিনয়ে রুচি নেই, তবুও বাবার গর্ব! বাহুবলির ‘কাটাপ্পা’র মেয়ে দিব্যার কাছে ফেল বলি সুন্দরীরাও

দক্ষিণী ছবিই হলেও ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিল ‘বাহুবলি (Bahubali)’। রিলিজের পর কয়েকশো কোটির বক্স অফিস কালেকশন করেছিল বাহুবলি। সাথে গোটা পৃথিবীজুড়ে দর্শকদের প্রশংসা পেয়েছিল ছবির কাহিনী থেকে অভিনেতা অভিনেত্রীদের অভিনয়। বিশেষত বাহুবলি ছবিতে ‘কাটাপ্পা (Katappa)’ চরিত্রটি আইকনিক চরিত্রে পরিণত হয়েছে। ‘কাটাপ্পা’ চরিত্রে অভিনয় করেছেন সত্যরাজ। বাহুবলিতে অভিনয় করে রাতারাতি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন অভিনেতা সত্যরাজ (Sathyaraj)।

বাহুবলি কিন্তু অভিনেতার প্রথম অভিনয় নয়! এর আগে একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। এমনকি শাহরুখ খানের সাথেও কাজ করেছেন ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস ছবিতে’। আর বাহুবলি ছবির পরেও একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন, হিসাব করলে হয়তো দেখা যাবে ২০০ এরও বেশি ছবিতে আছে কাটাপ্পা অভিনেতা। তবে অভিনেতা কাটাপ্পা নাম পরিচিত হলেও তার আসল নাম কিন্তু অন্য।

১৯৫৪ সালে চেন্নাইয়ের তামিলনাড়ুতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন অভিনেতা। মা বাবা নাম রেখেছিলেন রাঙ্গারাজ সুব্বা, তবে সেই নাম পরবর্তী কালে পাল্টে নিয়েছেন তিনি ইন্ডাস্ট্রিতে এসে। অভিনেতা দক্ষিণী বিখ্যাত প্রযোজক মাধ্যমপট্টি শিবকুমারের ভাইয়ের মেয়ে মাহেশ্বরীকে বিয়ে করেছেন। তাদের একটি মেয়েও রয়েছে। যার নাম দিব্যা। তবে কাটাপ্পার মেয়ে হলেও অন্য এক কারণে ইতিমধ্যেই বেশ জনপ্রিয় দিব্যা।

যেখানে বলিউডের অভিনেতা অভিনেত্রীদের ছেলে মেয়েরা বেশিরভাগ বাবা মায়ের মত অভিনয় বেছে নেই, সেখানে দিব্যা (Divya Sathyaraj) একেবারেই আলাদা। অভিনয়ের দিকে তাঁর কোনো ইন্টারেস্ট নেই! বরং সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করতেই ভালোবাসেন তিনি। মানুষের স্বাস্থ্য কিভাবে ভালো রাখা যায় সেটা নিয়েই কাজ করেন দিব্যা, পেশাগতভাবে তিনি একজন নিউট্রিশনিস্ট ও সমাজসেবী। আর নিজের কাজের জন্য পরিবারের কাছ থেকে সাপোর্টও পান দিব্যা।

দিব্যা যেমন দেখতে সুন্দর তেমনি গুণবতীও। মাদ্রাস বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্রাজুয়েট হয়েছেন তিনি। এরপর USA থেকে নিউট্রিশনের ওপর পড়াশোনা করেছেন। দিব্যা নিজে একটি এনজিও চালায়, যেখানে গরিব ছেলেমেয়েদেরকে ও অসহায় মহিলাদেরকে বিনামূল্যে খাওয়ানো হয়। এমনকি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে দেশের কুপোষিত বাচ্চাদের নিয়ে চিঠিও লিখেছেন দিব্যা।

এখানেই শেষ নয়, দেশের কুপোষিত বাচ্চাদের নিয়ে শীঘ্রই একটি আস্ত ডকুমেন্টরি ছবি তৈরী করতে চলেছেন দিব্যা। তাঁর মতে সুস্বাস্থ্যের সূত্রপাত হয় সঠিক পুষ্টিগুণ যুক্ত খাওয়া দাওয়া থেকেই। তাই খাবার যদি ঠিক মত খাওয়া যায় তাহলেই স্বাস্থ্য ঠিক রাখা সম্ভব। নিজের মেয়ের এই কাজের জন্য বাবা হিসাবে গর্ব অনুভব করেন অভিনেতা সত্যরাজ।

প্রসঙ্গত, সোশ্যাল মিডিয়াতেও কিন্তু বেশ সক্রিয় দিব্যা। প্রায় সাড়ে ৯ লক্ষের কাছাকাছি অনুগামী রয়েছে তার ইনস্টাগ্রামে। সেখানে স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্য থেকে শুরু করে পুষ্টিসম্পন্ন খাবারের ছবি থেকে নিজের সুন্দর সুন্দর ছবিও শেয়ার করেন। আর যদি সৌন্দর্যের দিক থেকে তুলনা করা হয়, তাহলে বলিউডের অভিনেত্রীদেরকেও সহজেই মাত দিয়ে দিতেই পারেন দিব্যা। সব মিলিয়ে বেশ চর্চায় থাকেন সত্যরাজ কন্যা দিব্যা।

যদিও অভিনয়ের দিকে যাবার কোনো ইচ্ছাই নেই দিব্যার, তবে নিজের সুন্দর রূপ ও বাবা অভিনেতা হবার দৌলতে অনেকেই ভাবেন হয়তো কোনোদিন তাকে ছবিতে দেখা গেলেও দেখা যেতে পারে। তবে একসময় USA এর একটি ফার্মা কোম্পানির থেকে মেরে ফেবার হুমকি পেয়েছিলেন দিব্যা। সেই সময় বেশ চর্চায় চলে এসেছিলেন তিনি।

Related Articles

Back to top button