৩০ বছর কাটেননি নখ, অবশেষে ঐতিহাসিক সেই নখ কাটতে গিয়ে কেঁদে ভাসালেন মহিলা


অনেকেরই অনেক ধরণের শখ থাকে, আর নিজের শখ পূরণের জন্য তারা যেকোনো পর্যায় পর্যন্ত যেতে পারেম তেমনই একজন আয়ান্না উইলিয়ামস। দীর্ঘ ৩০ বছর নিজের দুহাতের নখ না কেটে যত্নে বড় করেছিলেন মহিলা।

অবশেষে দীর্ঘ ৩০ বছর পর নিজের নখ কাটলেন আয়ান্না উয়িলিয়ামস। আয়ান্না গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের অধিকারী। বিশ্বের সবচেয়ে বড় নখের মালকিন ছিলেন তিনি। ২০১৭ থেকে টেক্সাসের বাসিন্দার দখলে ছিল এই রেকর্ড। ২০১৭-য় তিনি যখন গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম তোলেন তখন তাঁর নখের সর্ব মোট দৈর্ঘ্য ছিল ১৯ ফুট ১০.৯ ইঞ্চি।

গত সপ্তাহে আয়ানা নিজের নখ কেটে ফেলেন। তবে নখ কাটার আগে ফের একবার নিজের নখের মাপ নেন তিনি। সে সময় দেখা যায় আয়ানার নখের মোট দৈর্ঘ্য হয়েছে ২৪ ফুট ৭ ইঞ্চি। অর্থাৎ আয়ানা নিজেই নিজের রেকর্ড ভেঙেছেন। জানা গিয়েছে, ইলেকট্রিক রোটারি টুল ব্যবহার করে আয়ানার নখ কাটা হয়েছে। সংবাদমাধ্যমকে আয়ানা বলেছেন, দীর্ঘ তিন দশক ধরে যত্ন করে তিনি নখগুলিকে বড় করে তুলেছিলেন। তবে নখ কাটার পর তিনি এখন নতুন জীবন শুরু করতে চান।

আয়ান্না আরও জানান, তিনি সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। উল্লেখ্য, টেক্সাসের এই তরুণী ছোটবেলা থেকেই নেল এবং নেল আর্ট ভালোবাসতেন। নিজের বৃহত্তম নখের প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে আয়ানা জানান, দীর্ঘ নখ থাকার কারণে তাঁকে দৈনন্দিন জীবনে বেশ কিছু অসুবিধার মধ্যে পড়তে হত। চলাফেরা করতে হত খুব সতর্ক হয়ে। নখ যাতে ভেঙে না যায় সর্বদাই সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি দিতে হত। এবার নখ কেটে তিনি নতুন জীবন শুরু করবেন বলে আয়ানা জানিয়েছেন।