বিনোদন

ওর থেকে দূরে থাকো! ঐশ্বর্যের যৌবনে হাবুডুবু খাওয়া সঞ্জয় দত্তের প্রেমে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল তার বোনেরা

বলিউডে ((bollywood) কয়েক যুগ ধরে লাগাতার হিট ছবি উপহার দিয়ে গেছেন সঞ্জয় দত্ত (sanjay dutta)। অভিনয়ের দাপট, সাবলীলতা, ব্যক্তিত্ব সহ একাধিক বহুমুখী প্রতিভার জোরে বলিউডে কার্যত রাজ করেছেন অভিনেতা। আর ঠিক সেই সময়েই বলিউড পায় ঐশ্বর্য রাইয়ের (aishwarya rai) মতো সুন্দরী অভিনেত্রীকে। দুজনের ছবিই বক্স অফিসে চুড়ান্ত হিট হয়। এই জুটির প্রথম ছবি ছিল ‘শব্দ’। কিন্তু নিজেদের অসংখ্য জনপ্রিয়তা থাকলেও বক্স অফিসে এই ছবি কার্যত মুখ থুবড়েই পড়েছিল।

এই ছবির পোস্টার শ্যুটের জন্য ঐশ্বর্য সঞ্জয়কে একসাথে বেরোতে হয়েছিল। কিন্তু তার আগে সঞ্জয়ের বোনেরা দাদাকে পইপই করে বারণ করেছিল তিনি যেন ঐশ্বর্যের কাছাকাছি যাওয়ার চেষ্টাটুকুও না করেন। কোনো এক সাক্ষাৎকারে এই বিষয় নিজেই স্বীকার করেছিলেন মুন্না ভাই। জানা গিয়েছে ১৯৯৩ সালে যখন ঐশ্বর্য রাই বলিউডে পা-ই রাখেননি, এমনকী সেই সময়ে মিস ওয়াল্ড প্রতিযোগিতায় বিজয়ীও হননি ৷ শুধুমাত্র একজন মডেল ছিলেন, তখন থেকেই তিনি ঐশ্বর্যের রূপে মুগ্ধ হয়েছিলেন।

কিন্তু সেই সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা হওয়া সত্ত্বেও ঐশ্বর্যের সামনে মুখ খুলতে পারেননি তিনি। তার বোনেরা কড়া শাসনের ভঙ্গিতে অভিনেতাকে বলেছিল, ‘ঐশ্বর্যর ফোন নম্বরও যেন আমি না নিই, ফোনও যেন না করি একই সঙ্গে ঐশ্বর্যকে যেন ফুলও না পাঠাই আমি ৷’ যদিও তার বোনেরা ঐশ্বর্যের সঙ্গে দেখা করেছিল। কিন্তু তাকে বারণ করার পিছনে আসল কারণ আজও জানা যায়নি। শব্দ ছাড়াও সঞ্জয়ের সঙ্গে ঐশ্বর্য অভিনয় করেন ‘হাম কিসি সে কম নেহি সিনেমায়’। সঞ্জয় দত্তের বায়োপিক সঞ্জু ছবিতে এই ঘটনাটি দেখানো হয়েছে।

Related Articles

Back to top button