খবরভাইরাল

ল্যাপটপ থেকে ওয়াইফাই সব ফ্রি! দ্বাদশ ফেল অটোওয়ালার মাসের ইনকাম শুনলে লজ্জায় পড়ে যাবেন

কথায় আছে সফল হতে গেলে সবার আগে যেটা দরকার সেটা হল বুদ্ধি আর চেষ্টা। এই দুই থাকলে অনেক অসাধ্য সাধন করা যেতে পারে। এমন অনেক উদাহরণ রয়েছে যারা একেবারে মাটি থেকে শুরু করে আজ সাফল্যের চূড়ায় দাঁড়িয়ে  রয়েছেন। তবে একজন অতি সাধারণ ব্যক্তি যে চাইলেই নিজের ভাগ্য বদলে দিতে পারে আজ সেই কাহিনীই আপনাদের বলবো। যার কথা বলতে চলেছি তার নাম অটো আন্না, পেশায় অটো চালক। কিন্তু ইতিমধ্যেই সেলেব্রিটির থেকে কোনো অংশে কম নন তিনি।

চেন্নাইয়ের বাসিন্দা আন্না দুরাই (Anna Durai), অবশ্য লোকে তাকে অটো আন্না (Auto Anna) বলেই বেশি চেনে। কেন? কারণ মাত্র ৩৭ বছর বয়সেই আন্না এমন কাজ করে দেখিয়েছেন যেটা অবাক করার মত তো বটেই, পাশাপাশি ঈর্ষাজনকও। আন্না খুব একটা উচ্চশিক্ষিত নন, দ্বাদশ শ্রেণীতে ফেল করেছিলেন। ইচ্ছাছিল ব্যবসায়ী হবার, কিন্তু তা হয়ে ওঠেনি। পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভেবে ব্যবসার স্বপ্ন ছেড়ে অটো চালাতে শুরু করেন আন্না।

Auto Anna Chennai Earning In Lakhs every month

তবে অটো চালালেও আন্নার মতে সেরা পরিষেবা দিতে চান তিনি। বড় বড় ব্যবসায়ীদের মত বুদ্ধির জোরে আজ চেন্নাই শহরের হাজারো অটোর ভিড়ে আন্না নাম ফেমাস। কেন জানেন? কারণ আন্নার অটোতে রয়েছে নিত্যযাত্রীদের প্রয়োজনের সমস্ত সরঞ্জাম। খবরের কাগজ, ম্যাগাজিন, মিনি টিভি, ল্যাপটপ, ইন্টারনেট পরিষেবা কি নেই সেই অটোতে।

Auto Anna Chennai Earning In Lakhs every month

একদিনেই অবশ্য এতকিছু হয়ে যায়নি। প্রথমে অটোতে খবরের কাগজ রাখতেন আন্না। যাত্রীরা যেতে যেতে খাবরের কাগজ পড়তে বেশ পছন্দ করতেন। এরপর একদিন অটোতে উঠে কাজের জন্য ল্যাপটপ না পেয়ে খুব টেনশনে পরে যান এক ব্যক্তি। তারপর ল্যাপটপের ব্যবস্থা করেন। এরপর ইন্টারনেট পরিষেবা বা ওয়াইফাই সার্ভিস। এভাবেই একে একে নানা উপকরণ জুড়তে থাকেন আন্না।

Auto Anna Chennai Earning In Lakhs every month

এখানেই শেষ নয়, যাবার পথে যদি খিদে পায় তখন কি হবে? এর জন্য চিপস, ডাবের জল থেকে শুরু  করে ফল পর্যন্ত রাখা থাকে তার অটোতে। দ্বাদশ ফেল ছাত্রের এমন অভিনব উদ্যোগ সাড়া ফেলে দিয়েছে চেন্নাই সহ গোটা দেশে। অনেক বড়বড় সংস্থা তাকে তার অভিজ্ঞতা শুনতে তাকে ডেকে পাঠিয়েছে ইতিমধ্যেই। তেমনকি টেড টকেও নিজের  বক্তব্য রেখেছেন আন্না।

Auto Anna Chennai Earning In Lakhs every month

জানা যায় দিনে ১০০ জন যাত্রীদের নিজের অটো পরিষেবা দেন আন্না। তবে চাইলেই উঠতে পারবেন না অটোতে এর জন্য আগে থেকেই বুকিং  সেরে রাখতে হবে। অবশ্য শিক্ষকদের জন্য আন্নার অটো পরিষেবা একেবারে ফ্রী।

এভাবেই মাসে ১ লক্ষাধিক টাকা উপার্জন করেন আন্না। যেখানে অনেকেই মোটা মাইনের লোভে কর্পোরেট চাকরি পছন্দ করেন তাদেরকেও আরামসে লজ্জায় ফেলে দিতে পারে এই অটো আন্না।

Related Articles

Back to top button