বিনোদনসিরিয়াল

তিতিরের সাথেই থাক লালন, আসছে ফুলঝুরির নতুন প্রেমিক! ধামাকাদার টুইস্ট নিয়ে আসছে ‘ধূলোকণা’

লালন-ফুলঝুরির ‘ধূলোকণা’ (Dhulokona) ধারাবাহিকটি গত সপ্তাহের বেঙ্গল টপার হয়েছিল। এই ধারাবাহিকের সৌজন্যে টিআরপির দৌড়েও অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে স্টার জলসা। লিপস্টিক বিয়ে থেকে শুরু করে লালন (Lalon)-ফুলঝুরির (Fuljhuri) বিয়ে বিয়ে দেখিয়ে একের পর এক সপ্তাহে বাজিমাত করছে ‘ধূলোকণা’। তবে যতই বেঙ্গল টপার হোক না কেন, এই ধারাবাহিকের ট্র্যাক দেখে বেশ বিরক্ত হয়ে গিয়েছে দর্শকরা।

‘ধূলোকণা’র ট্র্যাকের জন্য সোশ্যাল মিডিয়াতেও চরম কটাক্ষের শিকার হচ্ছেন লেখিকা লীনা গাঙ্গুলী। ধীরে ধীরে যেভাবে গল্পের গরু গাছে উঠছে তা দেখে বেশ চটে যাচ্ছেন দর্শকরা। ফুলঝুরি-তিতির দু’জনের প্রতিই লালনের দুর্বলতা একেবারেই ভালোলাগছে না তাঁদের।

Lalon,Titir,Fuljhuri,

‘ধূলোকণা’য় এখন দেখানো হচ্ছে, স্মৃতি ফিরে এসেছে লালনের। ফুলঝুরিকেও সে চিনতে পেরেছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও তিতিরের প্রতি তাঁর টান কিছুতেই কমছে না। ফুলঝুরিকে কাছে পেলেও তিতিরের জন্য লালনের এখন মন কেমন করছে! তাঁর দাবি, সে দু’জনকেই ভালোবাসে এবং দু’জনের সঙ্গেই থাকতে চায়!

স্বামীর এমন ব্যবহার দেখে স্বাভাবিক কারণেই বেশ কষ্টে রয়েছে ফুলঝুরি। আর তা দেখেই দর্শকরাও ক্ষেপে আগুন হয়ে যাচ্ছে। এমন পরকীয়ার গল্প লেখার জন্য লীনাকেও ধুয়ে দিচ্ছেন তাঁরা। ইতিমধ্যেই প্রকাশ্যে আসা প্রোমোয় আবার দেখা গিয়েছে, ডিভোর্সের পথে হাঁটছে লালন এবং ফুলঝুরি। দিন দিন যেভাবে ‘লালঝুরি’র সম্পর্ক তলানিতে গিয়ে ঠেকছে তা দেখে মাথায় হাত পড়েছে দর্শকদের।

Lalon fuljhuri

যদিও ধারাবাহিকের একনিষ্ঠ দর্শকদের একাংশের দাবি, স্মৃতি ফিরে আসলেও লালন এখন একেবারে বাচ্চাদের মতো হয়ে গিয়েছে। সেই জন্যই সে ফুলঝুরি এবং তিতির দু’জনকেই চাইছে। তবে এসবের মাঝেই এবার ফুলঝুরির নতুন প্রেমিক নিয়ে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

Ankur and Fuljhuri

দর্শকদের একাংশের দাবি, লালনকে শায়েস্তা করার জন্য এখনই ফুলঝুরির প্রেমিককে ফিরিয়ে আনা হোক। তাহলেই তিতিরকে ভুলে ফের বৌয়ের প্রতি টান বাড়বে লালনের। ‘লালঝুরি’কে এক করতে তাই দর্শকরা চাইছে অঙ্কুরের চরিত্রটি অর্থাৎ তথাগত মুখার্জিকে আবার ‘ধূলোকণা’য় ফিরিয়ে আনা হোক। তিনি যেভাবে দু’জনের বিয়ে দিয়েছিলেন, সেভাবেই দু’জনকে ফের একও করে দেবেন। এবার দেখার, লেখিকা লীনা গাঙ্গুলী দর্শকদের এই দাবি শোনেন কিনা।

Related Articles

Back to top button