বিনোদন

স্কুলের মধ্যেই অশ্লীল ভাষায় আক্রমণ! ভালো কাজ করতে গিয়েই নিগ্রহের শিকার শুভশ্রী গাঙ্গুলির বাবা

অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলির (Subhashree Ganguly) পরিচিতি, এবং জনপ্রিয়তা নিয়ে নতুন করে কিছুই বলবার নেই। কিন্তু এবার তিনি শিরোনামে তার বাবার সাথে ঘটে যাওয়া ঘটনার জেরে। দেবপ্রসাদ গঙ্গোপাধ্যায়, অর্থাৎ শুভশ্রী গাঙ্গুলির বাবা তথা রাজ চক্রবর্তীর শ্বশুরকে স্থানীয় এক স্কুল থেকে নিগ্রহ করে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। এমনকি গালিগালাজ, হুমকি দিতেও ছাড়েননি তাকে।

জানা যাচ্ছে, বর্ধমানের একটি স্কুলে স্যানিটাইজিং টানেল বসানোকে কেন্দ্র করে এই অশান্তির সূত্রপাত। দেবপ্রসাদ বাবুর আরেকটি পরিচয় হল তিনি তৃণমূলের বিধায়ক। তাঁর সাথে এহেন জঘন্য ব্যবহার করেন বর্ধমানের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর মহম্মদ আলি ও তাঁর ভাইপো তৃণমূলের যুবনেতা নুরুল আলম। এমনকি লাঠি, রড, বন্দুক দেখিয়েও তাকে হুমকি দেওয়া হয় বলে খবর। ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে ব্যাপারটি জানিয়েছেন দেবপ্রসাদ বাবু।

আসল ঘটনার সূত্রপাত হয় ভালো কাজ করতে গিয়েই। শুভশ্রীর মাসি থাকেন বিদেশে। আমরা জানি, সমস্ত বিধিনিষেদ মেনে স্কুল কলেজ খোলার নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য সরকার। এমত অবস্থায় শুভশ্রীর মাসি ঠিক করেন তিনি দুটি স্কুলে স্যানিটাইজিং টানেল বসাবেন এবং সমস্ত খরচ দেবেন। এবং এই কাজের দায়িত্ব তিনি দেন জামাইবাবুর উপর। দেবপ্রসাদ বাবু সেই মতোই দুটো স্কুলে কথা বলেন।

বর্ধমান শহরের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের দুবরাজদীঘি হাইস্কুল ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের রেলওয়ে বিদ্যাপীঠ স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেন শুভশ্রীর বাবা। প্রধান শিক্ষকের অনুমতি নিয়েই শ্যালিকা সহ কয়েকজনকে নিয়ে দেবপ্রসাদ বাবু মেশিনটির ইন্সটলেশন করাতে যান, আর সেখানে গিয়েই বাঁধে ধুন্ধুমার। বচসা বাঁধে স্থানীয় তৃণমূল কর্মীদের সাথেই।।

Related Articles

Back to top button