বিনোদন

আনন্দ ভাগ করে নিলে বাড়ে! বছর শেষে পথশিশুদের মুখে হাসি ফোটাতে উপহারে ভরিয়ে দিলেন অপরাজিতা আঢ্য

আর কয়েক ঘন্টা পরেই বছর শেষ। এবছরটা মানুষকে অনেক কিছু শিখিয়েছে। বছরের শুরু থেকেই করোনার দাপটে ভয়ে কাঁটা হয়ে ছিল মানুষ, কত জন স্বজন হারিয়েছেন কতজন আবার এই বছরেই সাত পাক ঘুরেছেন মনের মানুষের সাথে। তাই ভালো মন্দে বছরটা বেশ কেটেই গেল। আজ রাত পোহালেই নতুন বছর। আর নতুন বছর মানেই অনেক মজা, অনেক সেলিব্রেশন। কিন্তু কিছু কিছু মানুষের কাছে আনন্দ করার সাধ থাকলেও সাধ্য থাকেনা অভাবের তারণায়।

এবার তাদের মুখে হাসি ফোটাতেই সান্টা সাজলেন অপরাজিতা আঢ্য। তিনি মনে করেন আনন্দ ভাগ করে নিলেই বাড়ে৷ তাই অভিনেত্রী একটু অন্য ভাবে শুরু করলেন নতুন বছর। এই ৩১ শে ডিসেম্বরের রাত এবং জানুয়ারির ১ তারিখ বেশিরভাগ তারকারই কাটে আলো রোশনাই জাঁকজমকপূর্ণ পার্টিতে। কিন্তু অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্য তুলে ধরলেন অন্য ছবি।

একদিকে চোখ রাঙাচ্ছে ওমিক্রণের সংক্রমণ তাই এই পরিস্থিতিতে নাচানাচি মানায় না। তাই অপরাজিতা নতুন বছর কাটালেন পথশিশুদের সঙ্গে। নিজের হাতে অসহায় পথশিশুদের জন্য তিনি কিনেছেন শীত পোশাক, রকমারি চকোলেট, বিস্কুট, কেক।

 

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Aparajita Adhya (@adhyaaparajita)

আর সেই সব পৌঁছে দিতে শীতের রাতে নিজেই তিনি নেমে পড়লেন রাস্তায়। অসহায় শিশুদের হাতে তুলে দিলেন সেসব মন ভালো করা এক রাশ উপহার। উত্তর কলকাতার (North Kolkata) গিরিশ পার্ক এলাকায় পোশাক ও খাবার বিতরণ করেন অভিনেত্রী৷ এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে অপরাজিতা লেখেন, “একটু খানি ব্যবস্থা যাদের নিউ ইয়ার বলে কিছুই নেই। সব দিন একইরকম”। এই সব তাদের হাতে তুলে দিতে পেরে অভিনেত্রী আরও লিখেছেন, “কিছু আনন্দ ওদের সাথে ভাগ করে নিলাম, ওদের মুখের এই অনাবিল হাসি আরেকটা বছর খোরাক হয়ে থাকুক। নতুন বছর নতুন প্রয়াস নতুন ভাবনা, সবাই ভালো থাকুন।”

 

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Aparajita Adhya (@adhyaaparajita)

Related Articles

Back to top button