বিনোদনভিডিওসিনেমা

হারিয়েছেন প্রিয়জন, রয়েছে অনেক দুঃখের স্মৃতি! নতুন জীবনে ফেরার কথা জানালেন অপরাজিতা আঢ্য

টলিউডের প্রাণখোলা হাসিমুখের অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্য (aparajita adhya)। সর্বদাই একরাশ হাসি নিয়ে দেখতে পাওয়া যায় অভিনেত্রীকে। টলিপাড়ায় অপাদি নামেও পরিচিত অভিনেত্রী, তাঁর অভিনয় দেখলেই যেন সমস্ত চিন্তা একনিমেষে হাওয়া হয়ে যায়। অভিনয়ের দক্ষতায় অভিনেত্রী যেন বাকিদের থেকে একেবারেই আলাদা।  তবে এমন একটা হাসি মুখের পিছনেও রয়েছে কিছু দুঃখ, এবার সেই কথাই সোশ্যাল মিডিয়ার পর্দায় শেয়ার করলেন অভিনেত্রী।

করোনা ভাইরাসের (covid-19) জেরে তৈরী হওয়া মহামারীতে দীর্ঘদিন ধরে ঘরবন্দি সাধারণ মানুষেরা। সাধারণ মানুষের মত অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্যও লকডাউনে ঘরবন্দি হয়ে পড়েছিলেন। এরপর মাঝে কিছুদিন পরিস্থিতি স্বাভাবিকের দিকে এগোলেও করোনা দ্বিতীয় ঢেউয়ে শোচনীয় পরিস্থিতি হয়। আবারো লকডাউন জারি হয়, ঘরবন্দি হয়ে পড়েন সকলে। সাথে অভিনেত্রীও আবার ঘরবন্দি হয়ে পড়েন।

Aparajita Adhya অপরাজিতা আঢ্য

দীর্ঘ ৭০ দিন ধরে লকডাউনের কারণে বাড়িতেই ছিলেন অভিনেত্রী। তবে এবার শুটিংয়ের (shooting) অনুমতি মিলেছে,কাজ শুরু হয়েছে টলিপাড়ায়। বহুদিনপর আবার শুটিংয়ের সেটে ফিরেছেন অভিনেত্রী। শুটিংয়ের সেটে মেকআপ করতে করতেই লাইভ ভিডিওতে শেয়ার করেছেন নিজের মনের কথা। সেখানেই রীতিমত নতুন জীবন শুরুর কথা বললেন অপরাজিতা আঢ্য।

অভিনেত্রী বলেন, ‘ করোনাতে প্রিয়জনকে হারিয়েছেন অভিনেত্রী। জীবন কতটা ভয়ংকর হতে পারে সেটা দেখেছিলেন অভিনেত্রী’। এরপর নিজেকে একেবারে আলাদা করে যতটা সম্ভব সাবধানে ছিলেন অভিনেত্রী। এরপর আজ প্রথম শুটিংয়ে এসেছেন তিনি। তাই আজ প্রথম শুটিংয়ে এসে অনেকটাই ভালো লাগছে অভিনেত্রীর। তাই সেই কথাই শেয়ার করেছেন লাইভ ভিডিওতে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে নিজেই মেকআপ করছেন অভিনেত্রী। আর তিনি একথাও বলেছেন যে নিজের মেকআপ নিজেই করেন তিনি। এরপর প্রোডিউসার থেকে শুরু করে পরিচালকদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন অভিনেত্রী তার পরিস্থিতির কথা বোঝার জন্য। সাথে দর্শকদেরও ধন্যবাদ জানিয়েছেন পাশে থাকার জন্য। শেষে প্রার্থনা করতে বলেছেন যাতে অভিনেত্রী সুস্থ থাকেন সকলে সুস্থ থাকেন আর এই পরিস্থিতি থেকে আমরা সকলেই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বেরিয়ে আসতে পারি।

Related Articles

Back to top button