ছবিবিনোদনভাইরালসিনেমা

ফ্যাট ঝরিয়ে প্যান্ট ছাড়াই লাস্যময়ী অবতার হাজির ঐন্দ্রিলা, প্রশংসায় পঞ্চমুখ হবু বর অঙ্কুশ

বাংলা টেলিভিশন জগতের অন্যতম পরিচিত মুখ হলেন ঐন্দ্রিলা সেন (Oindrila Sen)। একসময় সিরিয়ালের হাত ধরে শুরু হয়েছিল পথ চলা, এরপর সিনেমাতেও কামাল করেছেন। বর্তমানে টলিউডের অভিনেত্রীদের মধ্যেই একজন ঐন্দ্রিলা। তবে ইদানিং সোশ্যাল মিডিয়াতে সেলিব্রিটিদের ট্রোলিং থেকে শুরু করে একটু মোটা হলেই বডি শেমিং যেন ট্রেন্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই নোংরামির হাত থেকে বাদ যাননি ঐন্দ্রিলাও। তবে এবার নিন্দুকদের মুখে রীতিমত ঝামা ঘষে দিলেন অভিনেত্রী।

ঐন্দ্রিলা মাঝে বেশ কিছুটা স্বাস্থ্যবান হয়ে পড়েছিলেন। তাছাড়া লকডাউনের কারণে দীর্ঘদিন ধরে বাড়িতেই থাকতে হয়েছিল, সেই সময় হয়তো ঠিক মত শরীরচর্চা হয়নি বলে কিছুটা মোটা হয়ে পড়েছিলেন অভিনেত্রী। কিন্তু এর জন্য তাকে নেটিজেনরা রীতিমত ‘মোটা হাতি’ বলে কটাক্ষ করেছিল। মুখে কিছু না বললেও কাজে এই সমস্ত নিন্দুকদের জন্য একেবারে যোগ্য জবাব দিয়েছেন অভিনেত্রী।

বিগত কয়েক মাস ধরেই নিজেকে আবারও পুরোনো লাস্যময়ী ফিগারে নিয়ে আসার জন্য পরিশ্রম করছিলেন তিনি। এবার সেই পরিশ্রম স্বার্থক হয়েছে বলেই মনে হচ্ছে। সম্প্রতি নেটপাড়ায় ১০-১৫ কেজি ওজন কমিয়ে একেবারে পারফেক্ট ফিগারে দেখা মিলল অভিনেত্রীর। আর ছবি শেয়ার করেছেন খোদ প্রেমিক অঙ্কুশ হাজরা। ছবি শেয়ার করে নিজেই জানিয়েছেন যে রীতিমত চমকে দিয়েছে প্রেমিকা নিজের ট্রান্সফরমেশন দিয়ে।

ঐন্দ্রিলার ছবি শেয়ার করে অঙ্কুশ লিখেছেন, ‘সুন্দরীরা রেগে গেলে আরও সুন্দর লাগে। আমি ছবিতে ওর চেহারা নিয়ে খুব একটা চিন্তিত নই… তবে আমার ছবি তোলার গুণ নিয়ে গর্বিত। তবে মজা বাদ দিলে এটা বলতেই হবে, আমি তোমার এই ট্রান্সফরমেশন দেখে সত্যি সত্যিই গর্বিত’।

প্রসঙ্গত, অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলা দুজনেই শীতের মরশুমে ঘুরতে বেরিয়ে পড়েছেন। সম্প্রতি নিজেদের ঘোরার ফাঁকে একটি ভিডিও করে শেয়ার করেছিলেন ঐন্দ্রিলা। যেখানে দার্জিলিঙের রাস্তায় গরম গরম মোমো খেতে দেখা যাচ্ছিলো অঙ্কুশকে। তবে মুখ থেকে মাস্ক নামাতে ভয় পাচ্ছিলেন অঙ্কুশ কারণ আশেপাশেই পালিশ রয়েছে, তারা মাস্ক না খোলার জন্য সতর্কবার্তা দিচ্ছিলো।

Related Articles

Back to top button