গসিপবিনোদন

আগে মানুষের বিচার, পরে ছবির! কাজের অভিজ্ঞতা থেকে টলিপাড়ার নেপোটিজম নিয়ে অকপট অনির্বাণ ভট্টাচার্য

এই মুহূর্তে টলিউড ইন্ডাস্ট্রির শীর্ষ স্থানীয় অভিনেতাদের নাম নেওয়া হলে সেখানে নিঃসন্দেহে নাম থাকবে অনির্বাণ ভট্টাচার্যের (Anirban Bhattacharya)। অভিনেতা কাজ করেছেন একাধিক সুপারহিট সিনেমা। নিজের কাজের মাধ্যমেই তৈরি করেছেন নিজের পরিচয়। তবেএত বছর ধরে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছেন, অভিজ্ঞতা কেমন? সম্প্রতি একটি নামী সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপচারিতার সময় এই বিষয়ে মুখ খোলেন ‘দ্বিতীয় পুরুষ’ অভিনেতা।

অনির্বাণ গত ৮ বছরে ২১টি সিনেমা এবং ৬ বছরে ৮টি ওয়েব সিরিজে কাজ করেছেন। সম্প্রতি আবার বলিউডে রানী মুখার্জির সঙ্গে ‘মিসেস চ্যাটার্জি ভার্সেস নরওয়ে’ ছবিতে কাজ করেছেন তিনি। টলিউড (Tollywood) পেরিয়ে ধীরে ধীরে এবার বলিউডেও নিজের পরিচিতি তৈরি করছেন অনির্বাণ।

Anirban Bhattacharya

অবশ্য শুধুমাত্র অভিনেতা হিসেবেই নন, অনির্বাণ এখন পরিচিত পরিচালক হিসেবেও। তাঁর পরিচালিত ‘মন্দার’ দর্শকদের দারুণ পছন্দ হয়েছিল। এবার ‘বল্লভপুরের রূপকথা’ নিয়ে দর্শকদের কাছে আসছেন তিনি।

তবে অনির্বাণের মতে, দর্শকরা এখনও আগে মানুষকে বিচার করে তারপর তাঁর কাজকে। পরিচালক অনির্বাণের মতে, ‘দর্শকরা যে মাত্র জানতে পারেন অনির্বাণ ভট্টাচার্যের ছবি তখন অনির্বাণের সঙ্গে জড়িত যাবতীয় চিন্তাভাবনা ছবিটির সঙ্গেও জুড়ে যায়। আমার একটু আপত্তি রয়েছে এই বিষয়টার সঙ্গে। যদি উল্টোটা হতো, আমি একটু বেশি খুশি হতাম’।

Anirban Bhattacharya

সংশ্লিষ্ট সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপচারিতার সময় অনির্বাণ টলিউডের নেপোটিজম নিয়েও মুখ খুলেছেন। তিনি এমন একজন পরিচালক যিনি নিজের ছবিতে কোনও স্টারকিড নয়, বরং ইন্ডাস্ট্রির বাইরের প্রতিভাবান অভিনেতাদের সুযোগ দেন। ‘মন্দার’এ দেবাশিস মণ্ডলের পর ‘বল্লভপুরের রূপকথা’য় সত্যম ভট্টাচার্যকে সুযোগ দিয়েছেন পরিচালক অনির্বাণ।

অভিনেতার কথায়, অভিনেতা নির্বাচনের সময় তিনি প্রথমে তাঁর চেহারা দেখেন এরপর তাঁর অভিনয়। অনির্বাণের কথা, ‘‘মন্দার’ লেখার সময় আমি দেবাশিসের সঙ্গে মিল খুঁজে পাচ্ছিলাম। ওদিকে আবার ‘বল্লুভপুরের রূপকথা’র ভূপতির সঙ্গে সত্যমের মিল পাই। তবে অবশ্য চেহারার মিল রয়েছে বলেই একজন নন-অ্যাক্টরকে সুযোগ দিতে পারব না আমি’।

Anirban Bhattacharya with Debasish Mondal

সবশেষে অনির্বাণ বলেন, চরিত্রের জন্য যাকে প্রয়োজন হবে তিনি তাঁকেই কাস্ট করবেন। টলিপাড়ার এই অভিনেতা-পরিচালক জানান, তাঁর ভবিষ্যতে একটি ছোট ছবি করার ইচ্ছা রয়েছে যেখানে তিনি কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়কেই নিতে চান। সেই সঙ্গে এও জানিয়েছেন, তাঁর ছবিতে যে শুধুমাত্র থিয়েটার শিল্পীদেরই সুযোগ দেওয়া হবে এমন কোনও পরিকল্পনা নেই।

Related Articles

Back to top button