ওয়েব সিরিজবিনোদনসিনেমাসিরিয়াল

গুরুতর আহত অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়, সোশ্যাল মিডিয়ায় রসিকতার সুরে জানালেন দুর্ঘটনার কথা

বাংলা ইন্ড্রাস্ট্রির অন্যতম পরিচিত মুখ হলেন অভিনেতা অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায় (Aninndya Chatterjee)। ছোটপর্দার পাশাপাশি বড়পর্দা এবং ওয়েব সিরিজেও তাঁর অভিনয় মন জয় করেছে দর্শকদের। অভিনয়ের পাশাপাশি বাইক রাইডিং (Bike Ridding) তাঁর অন্যতম নেশা। সুযোগ পেলেই মাঝে মধ্যেই বাইক নিয়ে পড়েন তিনি। ঠিক তেমনই গতকালও বাইক রাইডিংয়ে বেরিয়েছিলেন অনিন্দ্য। আর তখনই আচমকা এক দুর্ঘটনার (Accident) মুখে পড়ে গুরুতর আহত তিনি।

জানা গেছে গতকাল বাইপাসে রুবির আগেই আর্সেলানের সামনে অভিনেতার বাইকে এসে ধাক্কা মারে একটি গাড়ি। বাইকটি তেমন ক্ষতিগ্রস্ত না হলেও গুরুতর চোট পেয়েছেন অভিনেতা। এরপর আহত অবস্থায় দ্রুত তাঁকে একটি বেসরকরি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর চিকিৎসকরা তাঁকে ছেড়ে দিলেও ডাক্তারদের পরামর্শ মেনে কিছুদিন, বিশ্রামেই থাকতে হবে তাঁকে। জানা গেছে তাঁর শরীরের নিচের অংশের টিস‍্যুও ছিঁড়ে গিয়েছে।

অনিন্দ্য চ্যাটার্জী Anindya Chatterjee

এমনিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিয়মিত অ্যাক্টিভ থাকেন অনিন্দ্য। এদিন নিজেদের দুর্ঘটনার খবরও ভক্তদের সাথে শেয়ার করেছেন তিনি। ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি শেয়ার করেছেন অভিনেতা। যা দেখে বোঝা যাচ্ছে হাসপাতালের মধ্যে একটি হুইল চেয়ারে বসে রয়েছেন তিনি। অনুরাগীদের চিন্তা কমাতেই এই পোস্ট করেছেন অনিন্দ্য।

ছবির ক্যাপশনে অনুরাগীদের উদ্দেশ্যে বার্তা দিয়ে তিনি লিখেছেন ‘আমি এখন ভাল আছি। আজ সকালে একটা অ্যাক্সিডেন্টের মুখে পড়েছিলাম। বাইক নিয়ে বেরিয়েছিলাম। বাইপাসে চালাচ্ছিলাম। আর্সালানের কাছে একটি চার চাকার গাড়ি পিছন থেকে আমার বাইকে সজোরে ধাক্কা মারে। আমি ছিটকে পড়ি। আমার বাইকটির কিছু হয়নি, কিন্তু আমার খুব ব্যথা লেগেছে। শরীরের ক্ষতি হয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে আমাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আমার শরীরের নীচের অংশের টিশু ছিঁড়ে গিয়েছে। সম্পূর্ণ বেড রেস্টে আছি আমি। এখন কাজ করতে পারব না। কয়েকদিন পরেই শুটিং ফ্লোরে ফিরতে পারব। খুব তাড়াতাড়ি ফিরছি।’

সেইসাথে এদিন বিপদের সময় যাঁরা তাঁর তাঁর পাশে ছিলেন তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়ে অভিনেতা লিখেছেন ‘আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই নিশান্ত মহেশ্বরী, শুভার্থ দত্ত ও রোমি দত্তকে। আজ আপনারা আমার জন্য যা করলেন কোনওদিনও ভুুলব না।’ অন্যদিকে অনিন্দ্যর এই পোস্টে রসিকতার করে ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেছেন যশ দাশগুপ্ত, পর্নো মিত্র, এবং মিমি চক্রবর্তীর মতো তাঁর ইন্ডাস্ট্রির বন্ধুরা। যা দেখে অনিন্দ্যর প্রতিক্রিয়া ‘তোরা আমায় ভালো থাকতে দিবি না, আমি বুঝে গিয়েছি।’

Related Articles

Back to top button