বিনোদনসিনেমা

রিয়ার বিয়ের দুদিন কাটতেই ইমোশনাল হয়ে,সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন বার্তা দিলেন অনিল কাপুর

বিগত এক দশকেরও বেশি দিন ধরে সম্পর্কে থাকার পর অবশেষে শনিবার অর্থাৎ ১৪ ই আগস্ট অনিল চিত্র পরিচালক করণ বুলানির (Karan Boolani) সাথে গাঁটছঢড়া বেঁধেছেন অনিল কাপুরের (Anil Kapoor) ছোটো মেয়ে তথা বলিউডের খ্যাতনামা চলচ্চিত্র প্রযোজক রিয়া কাপুর (Rhea Kapoor)। বানিজ্য নগরী মুম্বাইয়ের জুহুতে অনিল কাপুরের বাড়িতেই শুধুমাত্র পরিবারের সদস্য এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধু-বান্ধবদের উপস্থিতিতেই একেবারে ঘরোয়া পদ্ধতিতে অনাড়ম্বরভাবে বিয়ে সেরেছেন অনিল কন্যা।

ছোটো মেয়ের বিয়ের দুদিনের মাথায় ইমোশনাল হয়ে পড়েছেন অনিল কাপুর। সোশ্যাল মিডিয়ায় মেয়ের বিয়ে উপলক্ষে একটি গ্রুপ ছবি শেয়ার করেছেন এই প্রবীণ অভিনেতা। ছবিতে রয়েছেন দুই মেয়ে, দুই জামাই, স্ত্রী এবং ছেলে। ক্যাপশনে আবেগঘন বার্তা দিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘আমার মনে হচ্ছে ম্যাগনাম ওপাস শেষ হল। সঙ্গী আমার দুই কন্যা। তিন পুত্র। আমরা সবথেকে বড় ব্লকবাস্টার। আমাদের হৃদয় পরিপূর্ণ। সত্যিই আমাদের পরিবার আশীর্বাদধন্য।’

Anil Kapoor Emotional

অন্যদিকে বিয়ের দুদিনের মাথায় বিয়ের ছবি শেয়ার করেছেন নববধূ রিয়াও। ছবিতে দেখা যাচ্ছে রিয়ার মাথা ভর্তি সিঁদুর মাথা ভর্তি সিঁদুর, গলায় কুন্দনের সেট, আর মুখে চওড়া হাসি। আর নববধুর সাজে সেদিন তাঁকে সত্যিই ভীষণ মিষ্টি দেখতে লাগছিল।ছবিতে দেখা যাচ্ছে পাশেই তাঁর হাত ধরে রয়েছেন স্বামী করণ বুলানি। এই ছবি শেয়ার করে রিয়া নিজের বিয়ে নিয়ে এক অদ্ভুত এক্সাইমেন্টের কথা জানিয়েছেন।

Rhea Kapoor wedding

রিয়া তাঁর বিয়ের দিনের অভিজ্ঞতা শেয়ার করে লিখেছেন ‘১২ বছর পরও আমার এতটা ঘাবড়ে যাওয়া কিংবা অভিভূত হওয়া উচিত ছিল না, কারণ তুমি আমার সবথেকে প্রিয় বন্ধু এবং সর্বকালের সেরা মানুষ। কিন্তু সেদিন আমি কেঁদেছিলাম। কেঁপে উঠেছিলাম। আবার পেটও খানিক গুলিয়ে উঠেছিল কারণ, আমি এই নতুন অভিজ্ঞতা সম্পর্কে অবগত ছিলাম না। কথা দিচ্ছি, আমি তোমার কাছেও সেই মেয়েটাই থাকব, যে কিনা বাবা-মা ঘুমনোর আগে রাত ১১টার আগে বাড়ি ফিরত।আশা রাখছি দুজনে এমন এক পরিবার গড়ব যে পরিবারে আমাদের জীবনে যত ভালবাসা রয়েছে সবাই এক হবে’

অন্যদিকে জীবনের এই সেরা মুহুর্তকে সেলিব্রেট করার দিক দিয়ে পিছিয়ে নেই রিয়ার স্বামী করণও। বিয়ের ছবি শেয়ার করে রিয়ার উদ্দেশ্যে তিনি লিখেছেন, ‘গতকাল গোটা বিশ্বের কাছে আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে নবদম্পতি হিসেবে পরিচিত হলাম। কিন্তু এক দশকেরও বেশি সময় ধরে আমরা এই পথ চলেছি। আমার জীবনের সেরা সিদ্ধান্ত।’

Related Articles

Back to top button