খবরভাইরাল

মেয়ের শশুরবাড়ি বলে কথা! ১০০০ কেজি মাছ থেকে শখানেক মিষ্টি, খাসি, মুরগি পাঠালেন পাত্রীর বাবা

প্রত্যেক মা বাবাই চায় তার মেয়ে যেখানেই বিয়ে হয়ে যাক না শশুড়বাড়ির আদর পাক। কোলে পিঠে করে মানুষ করে বিয়ের পর বাবার বাড়ি ছেড়ে মেয়েরা চলে যায় বরের বাড়িতে। বিয়ের পরের দিন বরের বাড়ি যাওয়ার অনুষ্ঠানকে সকলেই বৌভাত নামেই জানি। আর এই বৌভাতে মেয়ের জন্য বাপের বাড়ি থেকে পাঠানো হয় উপহার বা সোজা ভাষায় বলতে গেলে তত্ত্ব।

এছাড়াও বিয়ের পর অনুষ্ঠান উপলক্ষে মেয়ের বাড়ির তরফ থেকে যায় উপহার। কিন্তু সেই উপহারই যদি কয়েক কয়েক হাজার কেজির! কি অবাক হলেন নাকি? এমনটাই ঘটেছে ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে। আসলে উপহারের পরিমাণটা যে নেহার সামান্য  নয়। মেয়েকে ভালোবেসে ভরপুর উপহার দিয়েছেন বাবা।

1000 kg fish

সব মা বাবাই চায় মেয়েকে তত্ত্বে অনেক উপহার দিতে। তবে  হাজার কেজি উপহার হয়তো বাড়াবাড়ি হয়ে যায়। কিন্তু এবার এমনি এক দুর্দান্ত উপহার মেয়ে দিলেন এক বাবা। মেয়ের বিয়ের পর শশুরবাড়িতে ১০০০কেজি মাছ পাঠিয়েছেন বাবা। শুধু তাই নয় মাছের সাথে ২৫০ কেজি মিষ্টি, ২৫০ কেজি মুদিখানার জিনিসপত্র। এছাড়াও ৫০ টা মুরগি ও ১০টা ছাগলও উপহার স্বরূপ পাঠিয়েছেন।

উপহারের লিস্ট শুনে মনে হতেই পারে যে বিয়ের পর গোটা বছরের জিনিসপত্র পাঠিয়েছে মেয়ের বাবা। তবে একমাত্র মেয়ে বলে কথা, বাবা চেয়েছে মেয়েকে একেবারে ভরে দিতে তাই এতকিছু পাঠিয়েছে মেয়ের শশুরবাড়িতে। আসলে সম্প্রতি অন্ধ্রপ্রদেশে হয়েছে অশধ মাসম, আর সেই উপলক্ষেই মেয়েকে এই উপহার পাঠিয়েছেন এক ব্যবসায়ী।

তবে মেয়েকে পাঠানো এই বিপুল পরিমাণের উপহারের খবর প্রকাশ্যে আসতেই হু হু করে ছড়িয়ে পড়েছে। অবশ্য এমন বিপুল উপহার ভাইরাল হবার মতনই খবর বটে। নানা সংবাদ মাধ্যমে ইতিমধ্যেই ওই ব্যক্তির মেয়েকে পাঠানো এই বিপুল উপহারের সম্পর্কে লেখা লেখি শুরু হয়ে  গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button