বিনোদন

নেশার দায়ে বারবার NCB এর জেরার মুখে অনন্যা! প্রেমিকার মন ভালো করতে ফুল নিয়ে হাজির প্রেমিক ইশান

বলিউড (Bollywood) আর মাদক যোগ (Drug case) যেন হালফিলে সমার্থক হয়ে উঠেছে। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই নড়ে চড়ে বসেছে NCB। গত কয়েক দিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে খবরের কাগজে লাগাতার শিরোনাম কেড়েছেন শাহরুখ (Shah Rukh khan) পুত্র আরিয়ান খান (Aryan Khan)। অক্টোবরের শুরুতেই মাদক কান্ডে গ্রেফতার হয়েছেন তিনি। বলি বাদশার পুত্র হয়েও মেলেনি কোনো বাড়তি সহায়তা।

আরিয়ানের পরেই মাদক কান্ডে নাম জড়িয়েছে আরেক তারকা কন্যার। চ্যাঙ্কি পান্ডের মেয়ে অনন্যা পান্ডে (Ananya Panday) ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকবার NCB এর জেরার মুখে পড়েছেন। বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার ঘন ঘন NCB -এর কাছে জবাবদিহি করতে হয়েছে চ্যাঙ্কি কন্যাকে। মাদককাণ্ডে প্রায় ৪ ঘন্টা ধরে জেরা করা হয়েছে অভিনেত্রীকে। যেখানে অনন্যা দাবি করেন, ‘গাঁজা যে এক ধরণের মাদক সেটা তিনি জানতেনই না!’

এরপর অনন্যা আরও বলেন, ‘একবছর আগে আরিয়ানের সাথে এই নিয়ে মজার চলেই এই নিয়ে কথাবার্তা হয়েছিল তাঁর’। আসলে আরিয়ান খানের হোয়াটস্যাপ চ্যাট ইতিমধ্যেই পেয়ে গিয়েছে NCB। সেখান থেকেই জানা গিয়েছে একবছর আগে অনন্যাকে মেসেজ করে মাদক জোগাড় করতে পারবে কি না জিজ্ঞাসা করেছিল আরিয়ান। যার উত্তরে অনন্যা জানিয়েছিলেন যে তিনি চেষ্টা করবেন। সেই সূত্রেই অভিনেত্রীকে জেরার যে অন্য ডেকে এনেছিল NCB।

স্বভাবতই এই সমস্ত ঘটনার সম্মুখীন হয়ে মানসিক ভাবে এক্কেবারে ভেঙে পড়েছেন অনন্যা। ‘খালি পিলি’র নায়িকাকে নিয়ে চর্চার শেষ নেই সংবাদ মাধ্যম থেকে শুরু করে সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ তবে এই কঠিন পরিস্থিতিতে অনন্যার পাশে রয়েছেন তাঁর চর্চিত প্রেমিক ইশান খট্টর৷ শনিবার অনন্যার সাথে দেখা করতে যাওয়ার আগে রাস্তায় গাড়ি থামিয়ে ফুল কিনতে দেখা যায় প্রেমিক ইশানকে।

 

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani)

ইতিমধ্যেই সেই ছবি ধরা পড়েছে পাপারাতজিদের ক্যামেরায়। বলাই বাহুল্য, প্রেমিকার মন ভালো করতেই যে ফুল কিনেছেন তিনি তা বুঝতে বাকি নেই কারোরই৷ প্রকাশ্যে নিজেদের প্রেম নিয়ে মুখ না খুললেও নতুন বছরের শুরুতে একসঙ্গে ছুটি কাটাতে মলদ্বীপ উড়ে গিয়েছিলেন দুজনে। নির্জন দ্বীপে তাঁদের একান্তের সময় কাটানোর ছবিও শেয়ার করেন তারা নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়ায়।

Related Articles

Back to top button