গানবিনোদন

ভালো না লাগলেও প্রশংসা করতে হবে! ইন্ডিয়ান আইডলের সত্যি সামনে আনলেন অমিত কুমার

ভারতীয় টেলিভিশন রিয়্যালিটি শো এর মধ্যে অন্যতম একটি হল ইন্ডিয়ান আইডল (Indian Idol)। শোতে বিচারকের আসনে রয়েছে গায়িকা নেহা কক্কর, হিমেশ রেশমিয়া, ও বিশাল দাদলানি। সম্প্রতি ইন্ডিয়ান আইডল ১২ বেশ চর্চায় চলে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। কারণ ইন্ডিয়ান আইডল কিশোর কুমারকে (Kishore Kumar) নিয়ে একটি বিশেষ পর্ব আয়োজিত হয়েছিল। সেই পর্বে কিশোর কুমারকে শ্রদ্ধার্ঘ্য দিয়েই একাধিক গান হয়েছিল। আর স্পেশাল অতিথি হিসাবে মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন কিশোর কুমারের ছেলে অমিত কুমার (Amit Kumar)।

শোতে কিশোর কুমারকে উদ্দেশ্য করে একটি ট্রিবিউট দিয়েছেন নেহা কক্কর, হিমেশ রেশমিয়া ও বিশাল দাদলানি। কিন্তু নেটিজেনদের মতে বিচারকদের গাওয়া গানটি মোটেও ভালো হয়নি। এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে ইন্ডিয়ান আইডল বিচারকদের নিয়ে ট্রোল চলছিল। এরপর স্পেশাল অতিথি অমিত কুমার এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন যে তিনি শোটি মোটেও উপভোগ করেননি। যেটা সকলের কাছে চমকে দেবার মত একটি সত্যি।

অমিত কুমারের মতে, শোটি একেবারেই বোরিং ছিল, তার মোটেই পছন্দ হয়নি এই শো। সাক্ষাৎকারে নেটিজেনদের বিচারকদের প্রতি ক্ষোভ নিয়েও জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল তাকে। যার উত্তরে তিনি জানান, ‘সবাই চাইলেই কিশোর কুমারের মত গান গাইতে পারেন না। কিশোর কুমার ছিলেন একপর্বত  সমান, একাধিক রূপে একাধিক ভঙ্গিমায় দেখা গিয়েছে কিশোর কুমারকে। যেটা এইপ্রজন্মের ছেলেমেয়েরা ঠিক বোঝে না। তাদের মতে কিশোর কুমার মানেই ‘রূপ তেরা মাস্তানা’। যেটা ঠিক নয়’।

এরপর ইন্ডিয়ান আইডল সম্পর্কে কিছু বিস্ফোরক তথ্য জানিয়েছেন কিশোর কুমার পুত্র অমিত কুমার। তিনি বলেন, ‘আমি সেটাই করেছি যেটা আমাকে করতে বলা হয়েছিল। আমাকে বলা হয়েছিল যে যেমনই গান করুক না কেন ভালো বলতে। প্রতিটা প্রতিযোগীর গান হবার পর তাদের প্রশংসা করতে। কারণ কিশোর কুমারের প্রতি একটা শ্রদ্ধার্ঘ্য দেওয়া হচ্ছে, তাই প্রশংসা করতে হবে। আমি রিকুয়েস্ট করেছিলাম যদি শোএর আগে আমায় স্ক্রিপ্ট দেওয়া হলে ভালো হয় তবে তার কিছুই হয়নি’।

এখানেই শেষ নয় তিনি আরো বলেন, ‘আমি চেয়েচিলাম শো বন্ধ করে দিতে। কারণ আমার ইন্ডিয়ান আইডলের এই পর্বটি একেবারে বিরক্তিকর ও বোরিং লেগেছিল’। প্রসঙ্গত, শুধু যে অমিত কুমার এই পর্বে খুশি হননি তা কিন্তু নয়। সোশ্যাল মিডিয়াতে নেটিজনদের তরফেও নানান প্রতিক্রিয়া পাওয়া গিয়েছে বিচারকদের নিয়ে। রীতিমত ট্রোলিংয়ের শিকার হয়েছেন ইন্ডিয়ান আইডলের বিচারকেরা।

Related Articles

Back to top button