গসিপবিনোদনসিনেমা

কাপুর পরিবারের চক্রান্তের ফলে কেরিয়ার ডুবেছিল, পরিচালক করেছিলেন ঠাট্টা! বিস্ফোরক আমিশা প্যাটেল

গতবছর সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) মৃত্যুর পর থেকেই নেপোটিজম (Nepotism) বিতর্কে সরগরম হয়ে ওঠে বিটাউন। এই স্বজন পোষণকে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে বলিউড রাতারাতি দুটি ভাগে ভাগ যায়। সেই তালিকায় একাধিক অভিনেতা ,অভিনেত্রী থেকে শুরু করে পরিচালক, প্রযোজক বাদ পড়েননি কেউই। সম্প্রতি ফের একবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে সেই স্বজনপোষণের বিতর্ক।

বলিউডে বরাবরই নেপটিজম ছিল। যার জেরে কাজ হাতছাড়া হয়েছে টিনসেল টাউনের একাধিক অভিনেতা-অভিনেত্রীদের। সেদিক দিয়ে দেখতে গেলে বলিউডে বরাবরই রাজ করে আসছেন খান ও কাপুররা। সেই তালিকায় একদিকে যেমন রয়েছেন সালমান খান (Salman Khan), তেমনি রয়েছেন করিনা কাপুর (Kareena kapoor), রণবীর কাপুর (Ranbir Kapoor)।

একসময় বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ছিলেন আমিশা প্যাটেল (Ameesha Patel)। অভিনয় দক্ষতার পাশাপাশি এই অভিনেত্রী যেমন সুন্দরী তেমন শিক্ষিতা।হৃতিক রোশনের বিপরীতে জুটি বেঁধে ‘কহো না প্যায়ার হ্যায়’ সিনেমার হাত ধরে প্রথম অভিনয় জগতে পা রেখেছিলেন এই তিনি।

কারিনা কাপুর Kareena Kapoor

তাঁর সেই প্রথম সিনেমাই বক্স অফিসে ব্যাপক হিট করেছিল। যদিও এই ছবিতে অভিনয় করার প্রথম অফার গিয়েছিল বলিউড ডিভা করিনা কাপুরের কাছে। কিন্তু পরবর্তীতে মা ববিতার কথায় এই ছবি ছেড়ে বেরিয়ে আসেন করিনা। পরবর্তীতে ‘রিফিউজি’ ছবিতে প্রথম ডেবিউ করেন করিনা। কিন্তু সেই ছবি চলেনি। এরপর সুভাষ ঘাই এর ‘ইয়াদে’ ছবিতে কাজ করার সুযোগ পান করিনা।

সম্প্রতি এই ছবির বর্ষপূর্তি ছিল। এই ছবিতেই অভিনয়ের জন্য প্রথমে আমিশা প্যাটেলকে সাইন করানো হয়। কিন্তু পরে এই ছবি থেকে আমিশাকে বাদ দিয়ে নেওয়া হয় করিনা কাপুরকে। এপ্রসঙ্গে সম্প্রতি মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী। তিনি জানিয়েছেন ছবি থেকে তাঁকে বাদ দেওয়ার কারণ জানতে চাওয়া হলে পরিচালক সুভাষ ঘাই তাঁকে শুধু ‘গড ব্লেস ইউ’ বলেন। ব্যাস এর বেশি আর শব্দ খরচ করেননি পরিচালক।

Related Articles

Back to top button