রেসিপি

এক তরকারিতে বাজিমাত, রইল বাড়িতে আলু ফুলকপি কাতলার কালিয়া তৈরির রেসিপি

মাছে ভাতে বাঙালির খাবারের পাতে মাছ থাকলে খাওয়া দাওয়া জমে যায়। এই কথা অস্বীকার কেউই করবেন না। বাজারে নানা ধরণের মাছ রয়েছে যা ভালোকরে রান্না করলে দুর্দান্ত স্বাদ আসে রান্নায়। আর দুপুরের পাতে গরম গরম ভাতের সাথে যদি মেলে কাতলা মাছের কালিয়া (Katla Fish Kaliya) তাহলে জমেই যাবে খাওয়া। কিন্তু মাছের কালিয়া আবার আলাদা তরকারি দুটো আলাদা না করে যদি একসাথে করা যায়!

হ্যাঁ ঠিকই দেখছেন এক তরকারিতে যদি হয় দুই কাজ? তাহলে কেমন হয় ব্যাপারটা? আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছে আলু ফুলকপি কাতলার কালিয়া তৈরির রেসিপি (Alu Fulkopi Katlar Kaliya Recipe)। যাতে আলু ফুলকপি থাকায় তরকারির কাজও হবে আর কাতলার কালিয়াও হবে। এক ঘেয়ে তরকারি ছেড়ে এবার এই নতুনত্ব রান্না খেয়েই দেখুন দারুন লাগবে। কি কি লাগবে আর কিভাবে তৈরী করবেন ? রইল বাড়িতে আলু ফুলকপি কাতলার কালিয়া তৈরির রেসিপি।

আলু ফুলকপি কাতলার কালিয়া তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণঃ 

  • কাতলা মাছ
  • আলু, ফুলকপি
  • আদা বাটা, জিরে বাটা, শুকনো লঙ্কা বাটা,
  • পেঁয়াজ টমেটো কুচি
  • গরম মশলা গুঁড়ো
  • পরিমাণ মত নুন ও সরষের তেল

আলু ফুলকপি কাতলার কালিয়া তৈরির পদ্ধতিঃ 

  • প্রথমে মাছ ও সব্জিগুলোকে ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে। এরপর মাছের পিস্ গুলোকে নুন হলুদ মাখিয়ে কিছুক্ষনের জন্য রেখে দিতে হবে।
  • সেই ফাঁকে ফুলকপি আর আলু মাঝারি মাপের করে কেটে নিতে হবে।

  • এবার কড়ায় তেল দিয়ে আলু ও ফুলকপিগুলোকে আলাদা আলাদা করে ভেজে তুলে রাখুন। তারপরমাছগুলিকেও ভেজেআলাদা করে রাখতে হবে।
  • এরপর  কড়ায় আরেকটু তেল দিয়ে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে হালকা ভাজা হলে টমেটো কুচি আর নুন হলুদ দিয়ে দিন আর তারপরেই আদা বাটা, জিরে বাটা, শুকনো লঙ্কা বাটা দিয়ে কষতে থাকুন।

  • কষা হয়ে গেলে তাতে ভেজে রাখা আলু আর ফুলকপি দিয়ে নাড়তে থাকুন। শেষে পরিমাণ মত জল দিয়ে দিন।
  • এবার এই আলু ফুলকপি ফুটতে শুরু করলেই তার মধ্যে ভাজা মাছগুলোকে ছেড়ে দিন।

  • হালকা আছে ১০-১৫ মিনিট রান্না করলেই আলু ফুলকপি কাতলার কালিয়া রেডি।

Related Articles

Back to top button