রেসিপি

রোজ একঘেয়ে রুটি খেতে কার ভালোলাগে! আজই ডিনারে বানান চটপটা আলু পুরী, রইল রেসিপি

ব্যস্ততায় ভরা জীবনে শরীরের প্রতি নজর তো দূরের কথা ঠিক মত খাওয়া দাওয়া টুকুও অনেকেই করেন না। তাড়াহুড়োর চক্করে ফাস্টফুডকেই বেছে নেন দিনের বেশিরভাগ সময়ে। আর বাড়ির একঘেয়ে রুটি তরকারি দেখলে তো ফোন হাতে তুলে নিয়ে কেউ কেউ অর্ডারই করে বসেন বাইরের খাবার৷ তাদেরও দোষ দিইনা, কেননা ভোজন রসিক বাঙালির একঘেয়ে খাবার যে মুখে রুচবেনা সেটাই তো স্বাভাবিক। তাই জন্যই ”Bong Trend” এর পর্দায় সকাল বিকাল আমরা চেষ্টা করি আপনাদের মুখরোচক কিছু খাবারের রেসিপি দিতে।

অনেকেই রাত্রের খাবারে রুটি খেয়ে থাকেন। তবে রোজ রোজ রুটি খেতে কি আর ভালো লাগে! তাই আজ আপনাদের শেখাব আলু পুরী তৈরির রেসিপি। এটা খেতে এতই ভালো হয় যে কোনোও তরকারি ছাড়া কেবলমাত্র টমাটো কেচাপ দিয়েও আরামসে আপনি এই পুরী খেয়ে নিতে পারবেন।

আলু পুরী বানানোর উপকরণ –

আলু দুইটি
২ টো পেঁয়াজ কুচি
শুকনো লঙ্কা ৩ টি
কাঁচা লঙ্কা কুচি
ধনে পাতা
হলুদ
চাট মশলা
তেল
ময়দা
বেকিং পাউডার

পদ্ধতি-

নুন দিয়ে প্রথমে আলু সেদ্ধ করে নিতে হবে। সেদ্ধ করে নেওয়া আলু ভালো করে চটকে তাতে একে একে পেঁয়াজ কুচি, লঙ্কা কুচি, ধনে পাতা কুচি, স্বাদমতো লবণ, হলুদ গুঁড়া, ও চাট মসলা দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।

অন্যদিকে ময়দা মেখে নেওয়ার জন্য একটি বড় বাটিতে ময়দা নিয়ে, তার মধ্যে ময়াম হিসেবে অল্প বেকিং সোডা, নুন, অল্প একটু তেল দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে, অল্প অল্প করে জল দিয়ে ডো তৈরি করে নিতে হবে। এবার ওই ডো আধ ঘন্টা ঢাকা দিয়ে রাখুন।

এবার ময়দার তাল থেকে ছোট ছোট লেচি কেটে নিয়ে ছোট্ট ফুচকার আকারে বেলে তাতে পরিমাণ মতো আলুর পুর ভরে দিন।

এবার চারপাশ দিয়ে কায়দা করে মুখ বন্ধ করে আবার গোল্লা করে নিন, বল তৈরি করা হয়ে গেলে যে পাশ থেকে মুখটা বন্ধ করা হয়েছে ঐ পাশটি নিচের দিকে দিয়ে বলটাকে রেখে একটি বেলনের সাহায্যে আস্তে করে বেলে পুরীর আকার তৈরি করে নিতে হবে। এভাবে সমস্ত পুরীগুলো তৈরি করে নিন।

সব পুরী তৈরি হয়ে গেলেই কড়াইতে ছাঁকা তেল গরম করে তাতে ওই পুরী ভেজে নিন একটা একটা করে, এরপর ঘুগনি অথবা যেকোনোও তরকারির সঙ্গে পরিবেশন করুন চটপটে আলু পুরী। এটা খেতে এতই টেস্টি হয় যে শুধুও খাওয়া যায়।

Related Articles

Back to top button