গসিপবিনোদনভিডিও

পেটের দায়ে দিনমজুরের কাজ, জুটত না দুবেলা খাবার! DID Super Mom বর্ষার জীবন সিনেমার চেয়ে কম নয়

হরিয়ানার এক মা সম্প্রতি একথা প্রমাণ করে দিয়েছেন যে কোনও বয়সে, যে কোনও পরিস্থিতিতে সফল হওয়া যায় এবং নিজের স্বপ্ন সত্যি করা যায়। বর্ষা বুমরাহ (Varsha Bumrah) সম্প্রতি ‘ডিআইডি সুপার মন’ খেতাব জিতে প্রমাণ করে দিয়েছেন যে প্রতিভা থাকলে যে কোনও পরিস্থিতি থেকেই ঘুরে দাঁড়ানো যায়।

জনপ্রিয় ডান্স রিয়্যালিটি শো ‘ডান্স ইন্ডিয়া ডান্স সুপার মমস’এর (DID Super Mom) চলতি সিজনের বিজেতা হয়েছেন হরিয়ানার বর্ষা বুমরাহ। বর্ষা এবং তাঁর স্বামী দু’জনেই দিনমজুরের কাজ করেন। পেটের দায়ে এই কাজ করতে বাধ্য হয়েছেন তাঁরা।

Varsha Bumrah

যতটা পরিশ্রমের সঙ্গে বর্ষা দিনমজুরের কাজ করতেন, ‘ডিআইডি সুপার মম’এও কিন্তু ঠিক ততটাই পরিশ্রম করেছেন। আর অবশেষে সফল হয়েছে সেই পরিশ্রম। জিতে নিয়েছেন খেতাব এবং ১০ লাখ টাকা। শোয়ের বিজেতা হওয়ার পর থেকে এখন একের পর এক প্রোজেক্টের অফারও পাচ্ছেন বর্ষা।

সেই সঙ্গেই ‘ডিআইডি সুপার মম’এও জানিয়েছেন যে, খেতাব জেতার পর তাঁর নিজেরই বিশ্বাস হচ্ছিল না যে তিনি জিতে গিয়েছেন। সেই সঙ্গে এও জানান, তিনি নিজের জীবনে এত বেশি টাকা কোনোদিন দেখেননি। এই প্রথমবার দেখলেন।

Varsha Bumrah

বর্ষা জানান, তিনি ‘ডিআইডি সুপার মম’ থেকে যে টাকা জিতেছেন সেই দিয়ে প্রথমে শোয়ে আসার জন্য যে দেনা করেছিলেন সেটি শোধ করবেন। এরপর বাকি টাকা নিজের ছেলের পড়াশোনার পিছনে ব্যয় করবেন।

‘ডিআইডি সুপার মম’ খেতাব জেতার পর বর্ষা জানান, তাঁর স্বামী নীতিনও দিনমজুরের কাজ করেন। তবে তাঁর স্বামী তাঁকে খুবই সমর্থন করেন। তাঁর সমর্থন ছাড়া তিনি কোনোভাবেই এই মঞ্চে আস্তে পারতেন না। সেই সঙ্গে এও জানান যে, তাঁদের সংসারের অবস্থা এতটাই খারাপ যে অনেক সময় তাঁদের দু’বেলা খাবারও জুটত না। তিনি যে নাচ শিখেছেন সেটিও ইউটিউব থেকেই। আর আজ সেই বর্ষাই ‘ডিআইডি সুপার মম’ খেতাব জেতার পর বদলে গেল তাঁর জীবন।

Related Articles

Back to top button