বিনোদনভিডিওসিনেমা

বাবা অক্ষয় ২৩০০ কোটির মালিক, তবুও ফাটা পোশাক পড়ছে বৌ, ছেলে! ভাইরাল ভিডিওতে কটাক্ষ নেটিজেনদের

বলিউডের সুপারস্টার অক্ষয় কুমার (Akshay Kumar), এটা আলাদা করে  বলার কিছুই নেই। তেমনিই বলিউডের ছবিতে অভিনয়ের জন্য প্রতি বছর কয়েকশো কোটি টাকা পারিশ্রমিক পেয়ে থেকেন অভিনেতা। তাই অভিনেতার জীবনযাপন যে রাজকীয় হালে কাটে সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। অক্ষয় কুমার বলিউডের অভিনেত্রী টুইঙ্কেল খান্নাকে (Twinkle Khanna) বিয়ে করেছেন। অক্ষয় কুমারের এক ছেলেও রয়েছে, নাম আরভ কুমার (Aarav Kumar)।

স্বামী স্ত্রী দুজনের অঢেল টাকা ও সম্পত্তি রয়েছে সেটা বোঝাই যাচ্ছে। আর মা বাবার বিপুলস ম্পত্তি থাকায় স্বাভাবিকভাবেই তাঁরা চান যাতে সন্তানদের জীবনে কোনো অভাব না আসে। তবে এটাও সত্যিই যে সেলিব্রিটি হওয়ার দরুন অক্ষয় টুইঙ্কেল তো বটেই তাদের সন্তানদের জীবনযাপন থেকে সমস্ত কিছু নিয়েই আলোচনা চলতে থাকে নেটপাড়ায়।

সম্প্রতি টুইঙ্কেল খান্না ও ছেলে আরভ  বেশ চর্চায় উঠে এসেছে। অবশ্য চর্চা বললে হয়তো ভুল বলা হবে, কারণ সোশ্যাল মিডিয়াতে তাদের নিয়ে ব্যাপক ট্রোলিং চলছে। কিন্তু হটাৎ কি এমন হল যে ট্রোলিং শুরু হল? এর জবাব হল তাদের পোশাক। সম্প্রতি এয়ারপোর্টে পাপ্পারাৎজিদের ক্যামেরায় ধরা পড়েছেন। সেখানে ছেঁড়া স্টাইলের কাপড় পরেই দেখা যাচ্ছে দুজনকে। সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার হওয়ার পর থেকেই শুরু হয়েছে ট্রোলিং।

নেটিজেনদের একাংশের মতে, স্বামী অক্ষয় কুমারের হাজার হাজার কোটির সম্পত্তি রয়েছে। এমনকি টুইঙ্কেল খান্নার সম্পত্তিও নেহাত কম নয়। তাহলে এমন ছেঁড়া ফাটা পোশাক কেন? যদিও বর্তমানে এমন স্টাইল কিন্তু বেশ কমন ব্যাপার। এক নেটিজেন ভিডিও দেখে মন্তব্য করেন, ‘এত টাকা থাকতেও ফাটা কাপড় পড়েছে’।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Koimoi.com (@koimoi)

এছাড়াও বাকিদের মন্তব্য, আরভ এমন অদ্ভুত কেন? কেন এমন অদ্ভুত ভাবে হাটে? তো কেউ আবার বলেছেন, সবসময় এমন ব্যাগ নিয়ে থাকে কেন? এমন নানা ধরণের মন্তব্যে ভরে গিয়েছে ভিডিওর কমেন্ট বক্স। এতেই একপ্রকার শুরু হয়েছে ট্রোলিংর।

প্রসঙ্গত, বলিউডের অভিনেতাদের মধ্যে সর্বোচ্চ ইনকাম ট্যাক্স প্রদান করেন অক্ষয় কুমার। এই মর্মে তাকে বিশেষ সন্মান দেওয়া হয়েছে ইনকাম ট্যাক্স ডিপার্টমেন্টের তরফ থেকে। সেই খবর প্রকাশ পাওয়া মাত্রই সর্বত্র ভাইরাল হয়ে পড়েছিল। সাথে এটাও জানিয়ে রাখা ভালো সারাবছরই নিজেকে কাজের মধ্যে ডুবিয়ে রাখতে ভালোবাসেন অক্ষয়।

Related Articles

Back to top button