গসিপবিনোদনসিনেমা

হাজার কোটির সম্পত্তির মালিক অক্ষয় কুমার, শুধু সিনেমা নয় রয়েছে আরও ৬টি আয়ের উৎস

বলিউডের ব্যস্ততম অভিনেতাদের মধ্যে অন্যতম হলেন খিলাড়ি অক্ষয় কুমার। সারাবছরই অভিনেতার হাতে থাকে ঠাসা কাজ। ইন্ডাস্ট্রিতে এখন তার আকাশছোঁয়া সাফল্য। গত বছরের ফোর্বসের তালিকা থেকে জানা যায়, অক্ষয়ই একমাত্র ভারতীয় অভিনেতা যিনি সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেতাদের তালিকায়,চতুর্থ স্থান অধিকার করেছিলেন। সামনেই মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছেন অক্ষয় কুমার অভিনীত আসন্ন সিনেমা ‘আতরঙ্গি রে’।

জানা গেছে এই সিনেমায় অভিনয়ের জন্য ১২০ কোটি টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছিলেন অভিনেতা। তবে শুধু সিনেমা নয়, সিনেমা ছাড়াও অক্ষয়ের আয়ের আরও একাধিক উৎস রয়েছে। আজ আপনাদের জানাব বলিউডের এই সুপারস্টার অভিনেতার আয়ের অনান্য উৎসগুলির কথা।

১) হরি ওম এন্টারটেইনমেন্ট প্রোডাকশন হাউস (Hari om entertainment production house)

২০০৮ সালে, অক্ষয় তার বাবার নামে একটি প্রোডাকশন হাউস খোলেন। এই প্রোডাকশন হাউসের মাধ্যমে, অক্ষয় ‘সিং ইজ কিং’, ‘হলিডে: অ্যা সোলজার নেভার অফ ডিউটি’, ‘এয়ারলিফ্ট’, ‘রুস্তম’ এবং ‘প্যাডম্যান’-এর মতো ছবি নির্মাণ করেছিলেন। একথা সকলেই জানেন অক্ষয়ের বেশিরভাগ সিনেমাই তৈরি হয় সামাজিক বার্তা দিতে। যা থেকে আমাদের সমাজ ভালো কিছু শিখতে পারে।

২) গ্রেজিং গোট পিকচার্স প্রোডাকশন হাউস (Grazing Goat Production House)

এই প্রোডাকশন হাউসটি অক্ষয় কুমার এবং অশ্বিনী ইয়ার্দির একটি ফিল্ম এবং টিভি প্রযোজনা সংস্থা। যা ২০১১ সালে চালু হয়েছিল। এই সংস্থার প্রযোজনায় নির্মিত প্রথম ছবি হল ‘ওএমজি’ – ওহ মাই গড! এখনও পর্যন্ত এটি ৫টি চলচ্চিত্র এবং একটি টিভি সিরিয়াল তৈরি করেছে। তার মধ্যে অন্যতম একটি সিরিয়াল হল ‘জামাই রাজা’।

৩) FAU-G ব্যাটেল রয়্যাল গেম (FAU-G Battle Royal Game)


চলচ্চিত্র ছাড়াও যে ৬টি জায়গা থেকে অক্ষয় মোটা টাকা আয় করেন, তার মধ্যে অন্যতম হল জনপ্রিয় অনলাইন ব্যাটল রয়্যাল গেম FAU-G। প্রসঙ্গত ইন্দোচীন সীমান্তে উত্তেজনার সময় ভারতে PUBG নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। ঠিক সেই সময়েই অক্ষয় নিজের ব্যাটেল রয়্যাল গেম চালু করার কথা ঘোষণা করেছিলেন। সেসময় অভিনেতা বলেছিলেন এই অ্যাপ থেকে হওয়া সমস্ত লাভের ২০ শতাংশ ভারত কে বীর ট্রাস্টে দান করা হবে।

৪) বিশ্ব কাবাডি লীগ (World Cobadi League)

স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতনতা নিয়ে বরাবরই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকেন অক্ষয়। তিনি একটি ক্রীড়া সংস্থা ওয়ার্ল্ড কাবাডি লিগেরও মালিক।

৫) নারীর আত্মরক্ষার প্রতিষ্ঠাতা (Women Self defense founder)


ক্যারাটেতে ব্ল্যাক বেল্ট প্রাপ্ত অক্ষয় দেশের মহিলাদের আত্মরক্ষা প্রশিক্ষণের জন্য মুম্বাইতে একটি মহিলা আত্মরক্ষা কেন্দ্রও চালান। এই সংস্থাটি যে কোন বয়সের মহিলাদের বিনামূল্যে আত্মরক্ষার প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে।

৬) বেস্ট ডিল টিভি (Best Deal TV)


বেস্ট ডিল টিভি হল একটি হিন্দি হোম শপিং টেলিভিশন চ্যানেল। যার মালিক স্বয়ং অক্ষয় কুমার এবং রাজ কুন্দ্রা। এই  চ্যানেলটি ২০১৫ সালের মার্চ মাসে চালু করা হয়েছিল। জানা যায় এটি ফ্রি-টু-এয়ার এবং সমস্ত প্রধান কেবল এবং DTH প্ল্যাটফর্মে উপলব্ধ।

Related Articles

Back to top button