খবরবিনোদন

ফাঁস হলো অডিও টেপ, AIIMS এর ডাক্তার বলছেন সুইডাইড নয় খুন করা হয়েছে সুশান্তকে

সুশান্ত হত্যাকাণ্ডে AIIMS এর ফরেনসিক রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে, তাতে বলা  হচ্ছে সুশান্তের খুন করা হয়নি। আত্মহত্যাই করেছিলেন সুশান্ত। এই রিপোর্ট সামনে আসার পর AIIMS এর ডঃ সুধীর সিং এর একটি  অডিও টেপ ফাঁস হয়েছে যেখানে ডঃ সুধীর দাবি করেছেন যে সুশান্তকে খুনই করা হয়েছে।

সংবাদ মাধ্যমগুলিতে বলা হয়েছে, সুশান্তের মৃতদেহের ছবি দেখে ডঃ গুপ্ত এই মন্তব্য করেছিলেন। কিন্তু AIIMS এর ফরেনসিক রিপোর্ট যেন উল্টোকথাই বলল। এখন প্রয়াত অভিনেতা সুশান্তের পরিবারের দাবি পুনরায় ফরেনসিক তদন্ত হোক।

প্রসঙ্গত, এর আগে একটি বিবৃতিতে ডঃ গুপ্তা AIIMS এর ফরেনসিক বিভাগের প্রধান বলেছেন,” আমরা আমাদের চূড়ান্ত বিবৃতি দিয়েছি। সুশান্তের মৃত্যু  একটি আত্মহত্যা, গলায়  ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছিলেন তিনি। ঝুলন্ত সুশান্তের দেহে কোনোরকম আঘাতের চিহ্ন মেলেনি। তাছাড়া নিহতের পরনে থাকা কাপড়ের থেকেও কোনো মারামারি বা হাতাহাতির লক্ষণ বা চিহ্ন মেলেনি।সুতরাং এটি একটি আত্মহত্যার ঘটনা”।

ডঃ সুধীর গুপ্তার এই প্রতিবেদনের উপর সুশান্তের পরিবারের আইনজীবী বিকাশ  সিং টুইট করেন  বলেন “AIIMS এর প্রতিবেদনটি নিয়ে আমি বিচলিত। পুনরায় ফরেনসিক টীম গঠন করে তদন্তের জন্য সিবিআই ডিরেক্টরের কাছে অনুরোধ জানাচ্ছি। “তিনি আরো বলেন  শরীরের অনুপস্থিতিতেও কিভাবে AIIMS এর ফরেনসিক দলেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিলেন! তও আবার কুপার হসপিটালের ধন্দে ভরা ময়নাতদন্তের রিপোর্ট দেখে যেখানে মৃত্যুর সময় অবধি উল্লিখিত নেই”।

সব মিলিয়ে সুশান্ত মৃত্যু তদন্তে AIIMS এর চূড়ান্ত রিপোর্ট প্রকাশিত হবার পরেও ধন্দ বজায় থাকল। এদিকে দেশ ও বিদেশে সমান ভাবে সুশান্ত হত্যার ন্যায় বিচারের জন্য ভক্তরা। সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম টুইটারে সুশান্তের জন্য ন্যায় বিচার চেয়ে সরব তার অগণিত ফ্যানেরা।

Related Articles

Back to top button