বিনোদনসিনেমা

স্টার না হয়েই নিজেকে সুপারস্টার ভাবে অনেকে! বিস্ফোরক প্রসেনজিৎ – ঋতুপর্ণার ষড়যন্ত্রের শিকার অভিষেক

বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির এক অতি পরিচিত নাম অভিষেক চ্যাটার্জী (Abhisekh Chatterjee)। গত দুই দশক আগেও নায়কের ভূমিকায় পর্দা কাঁপাতেন তিনি। তাঁর সাবলীল অভিনয়ের দক্ষতা এবং সুদর্শন চেহারায় মুগ্ধ হয়েছিল অসংখ্য সিনেমাপ্রেমী। নিজের কাজ দিয়েই তিনি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিলেন তাঁর সমসাময়িক প্রসেনজিৎ, চিরঞ্জিত, তাপস পালের মত দাপুটে অভিনেতাদের। প্রয়োজনে সেই সব অভিনেতা দের সাথে একই সিনেমায় অভিনয় করতেও তিনি পিছপা হননি, কারণ তিনি তার প্রতিভা নিয়ে এতটাই আশাবাদী ছিলেন।

অভিষেক চ্যাটার্জী তাঁর অভিনয় জীবনের শুরুর দিকে বেশ কিছু প্রতিভাবান অভিনেতার সঙ্গে অভিনয় করেন। সন্ধ্যা রায়, প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী, তাপস পাল উৎপল দত্ত, প্রমুখ অভিনেতাদের সাথে তিনি অভিনয় করেছেন। এঁদের মধ্যে অনেকেই তাঁর সহ অভিনেতার ভূমিকাতেও অভিনয় করেছেন। তবে শুধু বড় পর্দা নয় ছোট পর্দাতেও তিনি সমানভাবে সাবলীল অভিনয় করে দর্শকদের প্রশংসা পেয়েছেন। তরুন মাজুমদার পরিচালিত সিনেমা পথভোলায় অভিনয় করে তিনি অভিনয় জগতে পা রাখেন। এরপর একে একে সংঘর্ষ, ফিরিয়ে দাও, দহন, বাড়িওয়ালি, মধুর মিলন , মায়ের আঁচল, আলো ,ওয়ান, নীলাচলে কিরীটি এর মতো একের পর এক অসাধার সব সিনেমায় অভিনয় করে দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছেন। বর্তমানে জনপ্রিয় ধারাবাহিক খড়কুটোতে গুনগুনের বাবার চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি।

তবে অত দাপুটে অভিনেতা হয়েও টলিউডে নিজের মাটি বিশেষ শক্ত করতে পারেননি অভিনেতা। যদিও এই কারণে অভিষেকের মত, সেই সময় টলিউডের জনপ্রিয় জুটি প্রসেনজিৎ – ঋতুপর্ণার ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিলেন তিনি। সেই অভিমান আজও চাপা রয়েছে অভিনেতার মনে।

বর্তমানেও প্রচারের আলো থেকে দূরে থাকতেই পছন্দ করেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়া থেকেও থাকেন শতহস্ত দূরে। এখনও পর্যন্ত অভিনেতার কোনোও ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নেই। তাঁর নামে একটিই মাত্র ফেসবুক পেজ রয়েছে যা দেখভাল করেন অভিনেতার স্ত্রী।

বর্তমানে তারকারা সোশ্যাল মিডিয়ায় চূড়ান্ত সক্রিয়। তারা নিজেদের ব্যক্তিগত জীবনকেও প্রতিমুহূর্তে মানুষের সামনে তুলে ধরেন, সেই স্রোতে গা ভাসাতে নারাজ অভিনেতা অভিষেক চ্যাটার্জি। অভিষেকের দাবি, তিনি স্টার কিংবা সুপারস্টার কথাগুলিতে তেমন বিশ্বাসী নন। তিনি কেবল কাজে বিশ্বাসী, তাই সারাক্ষণ কাজেই ডুবে থাকেন।

তাঁর কাছে এই সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে অত্যাধিক বাড়াবাড়ি মূল্যহীন। অভিষেকের মত, “সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে অনেকেই স্টার না হয়েই নিজেদের সুপারস্টার হিসেবে দাবী করেন। আমার কাছের স্টার বা সেলিব্রিটির খুব একটা দাম নেই। আমার কাছে এন্টারটেইনার এর খুব দাম আছে।”

Related Articles

Back to top button