ছবিভাইরাল

একটুকরো সাবান দিয়েই তৈরী হল রবি ঠাকুরের মূর্তি, অসামান্য প্রতিভা! প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটপাড়া

এই পৃথিবীতে এমন অনেক মানুষ রয়েছেন যাদের মধ্যে অসাধারণ প্রতিভা রয়েছে। কারোর প্রতিভা যথার্থ মর্যাদা পায়, আবার কারোর প্রতিভা চিরকাল লোকচক্ষুর আড়ালেই থেকে যায়। তবে সোশ্যাল মিডিয়ার (Social) এই যুগে অনেক মানুষের সুপ্ত প্রতিভাই সামনে বেরিয়ে আসে। সম্প্রতি যেমন নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এমন একটি ভিডিও।

বর্তমান এই যুগ সোশ্যাল মিডিয়া চালিত, এই কথা যদি বলা হয় তাহলে হয়তো অত্যুক্তি হবে না। সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়া মানুষের এখন এক মুহূর্তও চলে না। সামাজিক মাধ্যমের সৌজন্যেই প্রত্যহ নানান ধরণের ভিডিও ভাইরাল হতে থাকে। সম্প্রতি যেমন একটি ভাইরাল ভিডিওয় দেখা গিয়েছে, এক টুকরো সাবান দিয়ে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মূর্তি (Ranbindranath Tagore idol) বানিয়েছেন এক যুবক।

Rabindranath Tagore

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জনসমক্ষে চলে এসেছে এই প্রতিভাবান যুবকের দুর্দান্ত প্রতিভা। যা দেখে মুগ্ধ হয়ে গিয়েছেন নেটিজেনরা। নেটপাড়ায় বইছে প্রশংসার ঝড়। আর প্রশংসিত হবেন নাই বা কেন, এক টুকরো সাবান দিয়ে তিনি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের (Rabindranath Tagore) যে মূর্তি বানিয়েছেন সেটি সত্যিই দুর্দান্ত।

সামাজিক মাধ্যম খুললেই পশু, পাখি, গানবাজনার নানান ধরণের ভিডিও আমাদের চোখে পড়ে। এসবের মাঝেই আলাদা করে নজর কেড়ে নিয়েছেন এই যুবক। চলতি বছরের জুন মাস নাগাদ ফেসবুকে এক যুবকের সাবান দিয়ে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মূর্তি বানানোর ভিডিওটি ভাইরাল হয়।

Rabindranath Tagore idol with soap

একটি জনপ্রিয় পেজ থেকে এই ভিডিওটি প্রথম শেয়ার করা হয়। পোস্টটির একদিকে দেখা যায় একটি লাল রঙের লাইফবয় সাবান এবং অপরদিকে দেখা যায়, সেই সাবান দিয়ে তৈরি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মূর্তি। পোস্টে দাবি করা হয়েছে, সেই মূর্তি তৈরি করা হয়েছে লাইফবয় সাবানটি দিয়েছে।

A boy makes Rabindranath Tagore idol with a soap, video goes viral

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিও শেয়ার করা মাত্রই সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। চারিদিকে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। প্রত্যেকে সেই যুবকের অসামান্য প্রতিভার তারিফ করেন। সংশ্লিষ্ট যুবকের নাম, পরিচয় জানা না গেলেও তিনি এক টুকরো সাবান দিয়ে যে নিখুঁত মূর্তিটি তৈরি করেছে তা দেখে অবাক হয়েছেন সবাই। ইতিমধ্যেই ভিডিওটি কয়েক হাজার মানুষ লাইকও করেছেন।

Related Articles

Back to top button