ভাইরালভিডিও

পেটের দায় বড় দায়! পড়াশোনার করার বয়সে টাকার জন্য রাস্তার ধারে পরোটা বিক্রি করছে ৯ বছরের ছেলে

কথায় আছে পেটের দায় বড় দায়! শুনতে খারাপ লাগলেও একথা কিন্তু একেবারে সত্যি। কারণ সময়ের সাথে সাথে সমাজে ধনী আর গরিবের পার্থক্য আরও বেড়েই চলেছে। নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেণীর (Lower Middle Class) মানুষেরাও দিন দিন পরিস্থিতির শিকার হয়ে গরিব হয়ে চলেছে। এমন হাজারো উদাহরণ আমাদের চারিপাশে রয়েছে যেখানে দেখা যাবে পেটের দায়ে রাস্তায় ভিক্ষা থেকে শুরু করে ছোটোখাটো কাজ করে কোনোমতে দিন কাটাচ্ছেন।

ইন্টারনেটের যুগে হাজারো ভিডিও রোজ ভাইরাল হতে দেখা যায়। ভাইরাল এই ভিডিওগুলির (Viral Video) মধ্যেই কখনো হাসির কিছু তো কখনো চমকে দেবার মত নিজেই চোখে পরে আমাদের। অনেকেই নিজেদের প্রতিভা প্রকাশ করার জন্য সোশ্যাল মিডিয়াতে মাধ্যম হিসাবে বেছে নেয়। আসলে অনেক এমন প্রতিভাধারীরা রয়েছে যারা টাকার অভাবে সঠিক মঞ্চ পেয়ে উঠতে পারে না। তাদের জন্য সোশ্যাল মিডিয়া একপ্রকার বরদানের মত কাজ করে।

সম্প্রতি নেটপাড়ায় একটি ভিডিও বেশ ভাইরাল হয়ে পড়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে রাস্তার ধারের একটি পরোটার দোকানকে। তবে রাস্তার ধারে এমন খাবারের দোকান তো সর্বত্রই থাকে, কিন্তু এই দোকানে কি এমন আছে যে দোকানের ভিডিও ভাইরাল হল? এর উত্তর রয়েছে ভিডিওটির মধ্যেই।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে খাবারের দোকানে পরোটা রান্না করছেন একটি ছোট্ট ছেলে। বেশ কায়দা করেই পরোটা রান্না করতে পারে সে। ক্যামেরার সামনেই নিজের ট্যালেন্ট দেখিয়েছে সে। কিন্তু কথা হল ছেলেটির বয়স মাত্র ৯ বছর। যে আর পাঁচটা ছেলে মেয়ে স্কুলে পড়াশোনা করতে ব্যস্ত থাকে সেই বয়সেই দোকান সামলাচ্ছে সে।

বোঝাই যাচ্ছে টাকার জন্যই এই কাজ করতে হচ্ছে তাকে। তবে ছেলেটিকে জিজ্ঞাসা করে তার বাড়ির পরিস্থিতি সম্পকে কিছুই জানা যায়নি। যদিও এটা বুঝতে অসুবিধা হবার কথা নয়, যে আর্থিক সমস্যার কারণেই এমন কাজ করতে হচ্ছে তাকে। সোশ্যাল মিডিয়াতে ছেলেটির দোকানের ভিডিও শেয়ার করার পর সেটি ব্যাপক ভাইরাল হয়ে পড়েছে। অনেকেই ছোট্ট ছেলেটির জন্য সহানুভূতিও জানিয়েছেন ভিডিওর কমেন্ট বক্সে।

Related Articles

Back to top button