গসিপবিনোদন

চেনা দায় ! বলিউড তারকাদের এই ৬ অবিশ্বাস্য মেকাপ লুক দেখলে চমকে উঠতে বাধ্য

নিঃসন্দেহে বলিউডে (Bollywood) এমন কিছু আশ্চর্যজনক গল্প নিয়ে ছবি হয়েছে, যা ভোলা অসম্ভব। চিত্রনাট্যের প্রয়োজনে সেখানকার চরিত্রগুলিও ব্যতিক্রমী। আর সেই ব্যতিক্রমী চরিত্রগুলিকে বাস্তবসম্মত করে তুলতে দুর্দান্ত মেকাপের (Make up) ব্যবহারও করা হয়েছে অভিনেতা অভিনেত্রীদের উপর। সেই মেকাপের জোরেই একজন অভিনেতা বা অভিনেত্রী সেই বিশেষ চরিত্র হয়ে উঠতে পেরেছে।

আজ এমনই কিছু অবিশ্বাস্য মেকাপ লুকের সন্ধান দেব যা তৈরি করতে শ্যুটিং এর আগে তারকাদের ঘন্টার পর ঘন্টা বসে থাকতে হয়েছিল। এবং মেকাপ আর্টিস্টের নিখুঁত হাতের যাদুতেই তৈরি হয়েছে সেই অবিশ্বাস্য লুক, যা দেখে এক ঝলকে চেনা দায় হবে তাদের। আজ এমনই ৭ টি চমৎকার মেকাপের হৃদিশ রইল।

১. অমিতাভ বচ্চন – পা

অমিতাভ বচ্চন অরো বা পা চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন । প্রোগেরিয়া নামক গুরুতর রোগে ভোগা একটি শিশুর চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি।ওমন উঁচু লম্বা,পেটানো চেহারার মানুষকেও মেকাপে পুরো অন্য একজন করে তোলা হয়েছিল। এই সিনেমার মেরুদন্ডই মেক আপ। এই ছবির মেকআপ দলে ক্রিস্টিয়ান টিনসলে (দ্য প্যাশন অফ দ্য ক্রাইস্ট খ্যাত) এবং ডমিনি টিল (দ্য লর্ড অফ দ্য রিংস খ্যাত) এর মতো শিল্পীরা অন্তর্ভুক্ত ছিলেন। মেকআপ লুকটি তৈরি করাও খুব কঠিন ছিল। সিনেমাটি মেকআপ দক্ষতার জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করে।

২. রাজকুমার রাও – রাবতা

রাবতা ছবিটি প্রত্যাশা মতো পর্দা জমাতে পারেনি। কিন্তু রাজকুমারের মেকআপ খুব সুনির্দিষ্টভাবে করা হয়েছিল। তিনি ৩৪ বছর বয়সী একজন মানুষের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এলএ থেকে একটি মেকআপ দল এটিতে কাজ করেছিল এবং সত্যই, তারা তাকে সম্পূর্ণরূপে অচেনা করে তুলেছিল। এমনকি যদি আপনি তার চরিত্রটি খুব বেশি সময় ধরে দেখেন তবে সম্ভবত আপনি বুঝতে পারবেন না যে এটি তিনি। যে শিল্পী এতে কাজ করেছিলেন তিনি ছিলেন জুবি জোহাল এবং তিনি অসাধারণ কাজ করেছিলেন।

৩. ঋষি কাপুর – কাপুর অ্যান্ড সনস

এই ছবিতে ঋষি কাপুর একজন ৯০ বছর বয়স্কর চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। মূল লক্ষ্য ছিল তাকে স্বাভাবিকভাবে তার চেয়ে বয়স্ক দেখানো কারণ সেই মানুষটি বয়স্ক সূক্ষ্ম মদের মতো। গ্রেগ ক্যানম এখানে মেকআপ আর্টিস্ট হিসেবে কাজ করেছিলেন।

৪. লারা দত্ত – বেলবটম

বেলবটম ছবিতে ছবিতে ইন্দিরা গান্ধীর লুকে লারা দত্তকে (Lara dutta) দেখে হতবাক নেটনাগরিকরা।
বলিউডের স্টাইলিশ সেক্সি অভিনেত্রীর এহেন পরিবর্তন মেলাতে পারছেন না কেউই। মেকাপ আর্টিস্টের হাতের জাদুতে লারা যেন অবিকল ইন্দিরা গান্ধীই। টুইটারে এই ছবির জন্য লারা দত্ত এখন ট্রেন্ডিং। গতবছরেই মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল অক্ষয় কুমার অভিনীত বেল বটম। তবে করোনার জেরে বারংবার পেছতে থাকে এই ছবি।

৫. রণবীর কাপুর – সঞ্জু

সঞ্জু বলিউডে মেকআপের ভালো দিকগুলির একটি উল্লেখযোগ্য উদাহরণ ছিল। রনবীর কাপুর থেকে সঞ্জয় দত্ত হয়ে উঠতে দৈনিক ভিত্তিতে ৩ ঘন্টা করে সময় লেগেছিল। যা রণবীরকে হুবহু সঞ্জয় দত্তের মতো করে তুলেছিল। ডাঃ মার্কি এবং হেয়ারস্টাইলিস্ট আলিম হাকিম এই জাদু করেছিলেন।

৬. শাবানা আজমি – মাকদী

সিনেমাটি ছিল বলিউডের প্রথম কমেডি হরর। যার জন্য শুধু অভিনয় নয় মেকাপের দক্ষতাও দরকার ছিল। শাবানাকে একটি দুষ্ট জাদুকরে রূপান্তরিত করতে হয়েছিল এবং এটি সম্ভব হয়েছিল অরুণ আদিত্য সিলের হাতের জাদুতে।

Related Articles

Back to top button