বিনোদন

২০২২ খুব খারাপ যেতে চলেছে শেহনাজ গিলের! জ্যোতিষীর আগাম ভবিষ্যদ্বাণী শুনে আঁতকে উঠেছেন অভিনেত্রী

দেখতে দেখতে প্রায় ১৫ দিন হতে চলল জনপ্রিয় অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্লা (Sidharth Shukla) আর আমাদের মধ্যে নেই। চলতি মাসের একেবারে শুরুতেই অর্থাৎ ২ সেপ্টেম্বর সবাইকে অবাক করে দিয়ে চির ঘুমের দেশে পাড়ি দিয়েছেন বিগ বস সিজন ১৩ জয়ী অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্লা। মুম্বইয়ের কুপার হাসপাতাল সূত্রে খবর ঘুমের মধ্যে একটি ওষুধ খেয়েছিলেন তিনি, এরপর আর সেই ঘুম ভাঙেনি। জানা যায় ঘুমের মধ্যেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় অভিনেতার।

সিদ্ধার্থের অকাল প্রয়াণে ভেঙে পড়েছেন তার চর্চিত বান্ধবী শেহনাজ কৌর গিলও (Shehnaz Kaur Gill)। সিদ্ধার্থের মৃত্যুর পর থেকে কথা বলার নূন্যতম শক্তি টুকুও হারিয়েছেন প্রাণোচ্ছল শেহনাজ। জানা যায় মারা যাওয়ার আগে শেহনাজই পিঠে হাত বুলিয়ে ঘুম পাড়িয়ে দিয়েছিল সিদ্ধার্থকে। এরপর আর চোখ খোলেননি সিদ্ধার্থ। যখন ডাক্তারের আসে ততক্ষণে সব শেষ। প্রেমিকা শেহনাজের কোলে মাথা রেখেই শেষ ঘুমে চলে গিয়েছেন অভিনেতা।

Shehnaaz Gill

কোনোও মানুষের জীবনে এর থেকে খারাপ দিন বোধহয় আর কিছুই হতে পারে না। আজও সেই শোক কাটিয়ে উঠতে পারেননি শেহনাজ৷ বিগবসের ঘরে দেখা স্বপ্ন গুলো নিমেষে ছারখার হয়ে গিয়েছিল অভিনেত্রীর, কোনোও রকম আগাম সতর্কবার্তা ছাড়াই। তবে এবার একটি ভবিষ্যদ্বাণী মিলেছে অভিনেত্রীর।

সম্প্রতি, এক ইউটিউব শো-তে সংখ্যাতত্ত্ববিদ নবনিধি ওয়াধা জানিয়েছেন ২০২১-এর মতোই ২০২২ সালও খুবই খারাপ কাটবে শেহনাজ গিলের। তাঁর দাবী, এর জেরে শেহনাজের জীবনে ফের নেমে আসবে বিপর্যয়। তবে এই বিপদ থেকে মুক্তির পথ বাতলে দিয়ে নববিধ জানিয়েছেন, এই পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য শেহনাজের চাই একজন সারাক্ষণের ছায়াসঙ্গী। যে অভিনেত্রীকে চোখের আড়াল পর্যন্ত করবেন না।

Shehnaaz Gill

যদিও শেহনাজের পরিবার সূত্রে খবর, তাকে কখনোই একা ছাড়া হয়না। নয় পরিবার নয় বন্ধু কেউ না কেউ সর্বক্ষণ তার সাথে সাথেই থাকেন। এমনকি প্রেমিক অভিনেতার মৃত্যুর পর পুত্রহারা সিদ্ধার্থের মা রীতা শুক্লাও শেহনাজকে সন্তানস্নেহেই দেখভাল করছেন। শেহনাজ যাতে সুস্থ, স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারেন তাঁর জন্য পাশে থেকেছেন তিনি। আগের মতো ক্যামেরার মুখোমুখি হওয়ার জন্যও মানসিক শক্তি জুগিয়েছেন। তবে এত বড় ঝড়ের পরে আবার একটা ঝড় কীভাবে সামলাবেন শেহনাজ তা ভেবেই চিন্তায় ঘুম উড়ছে অভিনেত্রীর শুভাকাঙ্ক্ষীদের।

Related Articles

Back to top button