গসিপবিনোদনসিনেমা

স্বপ্ন ছিল বলিউড ষ্টার হবার, কিন্তু পূরণ হয়নি! অবাঙালি হয়েও আজ টলিউডের সুপারস্টার জিৎ

টলিউডের সুপারস্টার অভিনেতাদের মধ্যে প্রথমেই উঠে আসে জিৎ (Jeet) এর নাম। দেখতে দেখতে বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে দুই দশকেরও বেশি সময় কাটিয়ে ফেলেছেন অভিনেতা। সাথী ছবি দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করে একের পর এক সুপারহিট ছবিতে দুর্দান্ত অভিনয় করে দর্শকদের মন জিতে নিয়েছে জিৎ। টলিউডের প্রথম সারির অভিনেতাদের সাথে পাল্লা দিয়ে দর্শকদের মনে নিজের জায়গা করে নিয়েছেন পাকাপাকি। তবে মজার বিষয় হল বলিউডে আসার ইচ্ছা ছিল না প্রথম থেকে।

আজ থেকে 19 বছর আগে 2001 সালে সাথী ছবিতে অভিনয় করেছিলেন জিৎ। সাথী ছবির ও বন্ধু তুমি শুনতে কি পাও গান টা আজও বাঙালির হৃদয় গেছে রয়ে গেছে। ২০০১ সালে যখন ছবি তৈরি হয় তখন শুরুতেই হিট এমন হিরো খুব কমই ছিল। তা সত্ত্বেও নিজের প্রথম ছবিতেই ফাটিয়ে দিয়েছিলেন জিৎ। দিনেরপর দিন হাউসফুল ছিল সাথী ছবি। এরপর টলিউডে একেরপর এক সুপারহিট ছবিতে দেখা গিয়েছে জিতকে।

জিত Jeet

অভিনয়ের প্রতি খুব ছোটবেলা থেকেই আগ্রহ ছিল জিতের। জিৎ এর আসল নাম জিতেন্দ্র কুমার। দক্ষিণ কলকাতার ছেলে জিতেন্দ্র স্বপ্ন দেখত বলিউডের সুপারস্টার হবার। ছোট থেকেই আয়নার সামনে দাড়িয়ে সিনেমা থেকে সিরিয়ালের অভিনয় নকল করত। এরপর অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ থেকেই ভর্তি হয়েছিলেন অভিনয়ের প্রশিক্ষণে। একসময়ের নবাব গেঞ্জির বিজ্ঞাপনে অভিনয় করেছিলেন জিৎ। এরপর মডেলিং শুরু করেন অভিনয়ের পাশাপাশি।

মডেলিংয়ের সময়েই সিরিয়ালের প্রযোজকদের জনরে এসে বিষবৃক্ষ ও জন্মভূমি নামের দুটি সিরিয়ালে অভিনয় করেন। তারপর সোজা স্বপ্নপূরণের উদ্দেশ্যে ১৯৯৫ সালে মুম্বাইয়ে পাড়ি দেন জিতেন্দ্র তথা জিৎ। সেখানে গিয়ে জায়গায় জায়গায় অডিশন দিয়েও সিঁকে ছেঁড়েনি ভাগ্যে! শেষে সুযোগ আসে সাউথের একটি ছবির। চান্দু নামের দক্ষিণী ছবিতে অভিনয়ও করেন। কিন্তু দুৰ্ভাগ্যবশত ছবি ফ্লপ হয়।

এরপর হতাশা নিয়েই কলকাতায় ফিরে আসেন জিৎ। তবে বেশিদিন হতাশ হয়ে থাকতে হয়নি, কারণ কলকাতায় ফিরেই বদলে যায় ভাগ্য। পরিচালক  হরনাথ চক্রবর্তীর সাথী ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ মেলে। আর সেই ছবিই মোড় বদলে দেয়, জিতেন্দ্র কুমার থেকে টলিউডের জিৎ হয়ে ওঠেন অভিনেতা। এরপর নাটের গুরু, বন্ধন, ঘাতক, শুভদৃষ্টি একাধিক সুপারহিট ছবির মধ্যে দিয়ে আজ টলিউডের সুপারস্টার জিৎ।

Related Articles

Back to top button