বিনোদনসিনেমা

ক্যানসারের সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে ব্যর্থ! প্রয়াত ৩৫ বছরের সাউথ অভিনেত্রী

ক্যানসার বাসা বেঁধেছিল শরীরে। মারণ রোগের সঙ্গে দীর্ঘদিন পাঞ্জা লড়ে অবশেষে ব্যর্থ মালায়ালাম অভিনেত্রী শরন্যা শশী। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল মাত্র ৩৫ বছর। হাসপাতাল সূত্রে জানা যাচ্ছে, কোভিডেও আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি৷ কিন্তু মৃত্যুর সপ্তাহ খানেক আগে সুস্থ হয়ে বাড়িও ফিরে এসেছিলেন অভিনেত্রী।

তবে বাড়ি ফিরে ক্রমেই তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে। তার শরীরের সোডিয়ামের মাত্রা কমতে শুরু করে। এরপর তাকে তড়িঘড়ি ভর্তি করা হয় একটি স্থানীয় বেসরকারি হাসপাতালে। তবে এবার আর বাঁচিয়ে ফেরানো গেলোনা। সোমবার দুপুরেই প্রয়াত হন তিনি।

২০১২ সাল থেকেই তিনি তার শরীরে বয়ে নিয়ে বেড়াচ্ছেন মারণব্যধি ক্যানসার। এরপর দীর্ঘ ৯ বছরে তার শরীরে হয় মোট ১১ টি অপারেশন। চিকিৎসা করাতে গিয়ে নিজের সঞ্চিত সমস্ত অর্থও তলানিতে এসে ঠেকেছিল। শেষমেশ ইন্ডাস্ট্রির পরিচিত সহকর্মীদের কাছেই হাত পেতেছিলেন তিনি। অনেকে এগিয়েও এসেছিল। কিন্তু তবু শেষ রক্ষা হল না।

মালায়ালাম টেলিভিশনের জনপ্রিয় মুখ ছিলেন তিনি। মান্থারকোডি, সীতা, হরিচন্দ্রমসহ বেশ কিছু জনপ্রিয় ধারাবাহিকের কাজ করেছিলেন অভিনেত্রী। তার অকাল প্রয়াণে গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে তার পরিবার তথা গোটা ইন্ডাস্ট্রি জুড়েই৷ ছোট্টা মুম্বই, বম্বে, থালাপাভুসহ বেশ কিছু আঞ্চলিক ছবিতেও কাজ করেছিলেন তিনি।

কেরলের কন্নোরের পাঝায়ানগণ্ডি এলাকার বাসিন্দা শরণ্যার প্রয়াণে শোক প্রকাশ করেছেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। শোক বার্তায় বিজয়ন জানান, অসুস্থতার সঙ্গে জোর দমে লড়াই করেছিলেন শরণ্যা। এমনকি কেরলে বন্যার সময় নিজের চিকিৎসার খরচ থেকে প্রবল আর্থিক কষ্টের মধ্যেও শরণ্যা মানুষকে সাহায্য করেছিলেন, সেকথাও এদিন স্মরণ করান বিজয়ন।

Related Articles

Back to top button