গসিপবিনোদন

বিগবস ওটিটিতে কেঁদে ভাসালেন শমিতা! রাকেশের সাথে প্রেমের গুঞ্জন উড়িয়ে পুরো পাল্টি অভিনেত্রীর

ভারতীয় টেলিভিশনের অন্যতম চর্চিত রিয়ালিটি শো হল বিগ বস। প্রতি বারের মতো এবারেও এই শো নিয়ে দর্শকদের উন্মাদনা রয়েছে তুঙ্গে। এ বছর শুরু থেকেই ‘বিগ বস সিজন ১৫’ তে রয়েছে একাধিক নতুন চমক। দর্শকদের সমস্ত অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ভুটে সম্প্রচার শুরু হয়েছে ‘বিগ বস ওটিটি’ (Big Boss OTT)।

আর এই সিজনে একেবারে প্রথম থেকেই সমস্ত লাইমলাইট কেড়ে নিয়েছেন শিল্পা শেট্টির বোন অভিনেত্রী শমিতা শেট্টি (Shamita Shetty)। তার সাথে ঘরের আরেক প্রতিযোগী রাকেশ বাপতের (Rakesh Bapat) সম্পর্কের গুঞ্জন অজানা নয় কারও কাছে। বিগবসের বাড়িতে এই দুই জনকে আলাদা দেখাই যাচ্ছিল না এতদিন। সারাক্ষণ শমিতাকে আদর যত্নে ভরিয়ে রাখছিলেন রাকেশ।

কিন্তু সম্প্রতি নজরে এসেছে রাকেশ শমিতার ঝামেলার দৃশ্য । রাকেশের ঠাট্টায় বেশ বিরক্ত হয়ে যান শমিতা। এরপর রাগ করে বেডরুম থেকে বেরিয়ে রাকেশের সাথে সব কিছু শেষ করে দেওয়ার কথা জানান আরেক প্রতিযোগী নেহা ভাসিনকেও (Neha Bhasin)। উল্লেখ্য বিগ বসের ঘরে রাকেশ ছাড়াও অপর সদস্য তথা গায়িকা নেহা ভাসিনের সাথে ভালো কানেকশন তৈরি হয়েছে শমিতার। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে এদিন স্নেহার কাছেই ফের একবার কান্নায় ভেঙে পড়েন শমিতা।

প্রকাশ্যে তিনি বলেন, ‘রাকেশ বাপত আমার মনের মানুষ হতে পারে না।’ উল্লেখ্য এই ঘটনার সূত্রপাত হয় বিগ বসের ঘরে একটি একটি ‘টাস্ক’-কে কেন্দ্র করে। যার রাকেশ শমিতাকে দিব্যা আগরওয়ালের (Dibya Agarwal) সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপন করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। রাকেশের কথা শুনেই রাজিও হয়েছিলেন শমিতা। কিন্তু দিব্যা শমিতাকে ছেড়েই অন্য এক প্রতিযোগীর সঙ্গে জুটি বাঁধেন। এরপর রাগ চেপে রাখতে পারেননি শমিতা।

রাগের মাথায় রাকেশের উপরেই ক্ষোভ উগরে দেন তিনি। এই ঘটনায় রাকেশের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিগ বস’-এর প্রাক্তন প্রতিযোগী কাম্য পাঞ্জাবি। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘তুমি ঠিকই বলেছ শমিতা। রাকেশ তোমার মনের মানুষ হতে পারে না। তোমার এমন একজনকে চাই, যে তোমার তালে নাচবে। কিন্তু রাকেশ সে রকম মানুষ নয়। আর ও একেবারেই বিভ্রান্ত নয়। বরং তা এখন আরও বেশি স্পষ্ট ভাবে সামনে এসেছে।’

Related Articles

Back to top button