গসিপবিনোদনসিনেমাসিরিয়াল

মনোবিদ বন্ধুকেই মন দিয়েছেন ঋতাভরী! খুব শীঘ্রই তাঁর সাথে বাঁধা পড়তে চলেছেন সাতপাকে

বাংলার জনপ্রিয় প্রবাদ ‘রূপে লক্ষ্মী, গুণে সরস্বতী’-র একেবারে পারফেক্ট ম্যাচ (Perfect Match) হলেন অভিনেত্রী সুন্দরী ঋতাভরী চক্রবর্তী (Ritabhari Chakraborty)। তবে আজ একেবারে সপ্তাহের শুরুর দিনেই বাংলার অসংখ্য পুরুষের মন ভেঙে দিলেন তিনি। হ্যাঁ যা ভাবছেন সেটাই এবার আর সিনেমার পর্দায় নয় বাস্তবেই বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন অভিনেত্রী। অন্তত সূত্রের খবর এমনটাই।

তবে পাত্র ইন্ডাস্ট্রির কেউ নন। আসলে পেশায় মনোবিদ বন্ধুকেই মন দিয়েছেন লাখো যুবকের ‘ক্রাশ’ ঋতাভরী। জানা গেছে পাত্রের নাম তথাগত চট্টোপাধ্যায় (Tathagata Chattopadhyay)। ব্যাবসায়ী পরিবারের ছেলে হলেও এই ডাক্তারবাবু কিন্তু ভালোবাসেন সমাজসেবা করতে। আর আজকের দিনে ঋতাভরীর সোশ্যাল ওয়ার্ক করার কথা তো অজানা নেই কারো। জানা গেছে এই সোশ্যাল ওয়ার্ক করার সূত্রেই আলাপ হয় তাঁদের। তারপর সেখান থেকেই বন্ধুত্ব এবং গভীরতা পায় সম্পর্ক।

ঋতাভরী চক্রবর্তী Ritabhari Chakraborty

তবে তাঁদের সম্পর্কের বয়স ৬ মাস হলেও একে অপরের সাথে তাঁরা ভীষণ খুশি। ইতিমধ্যেই দুই বাড়ির সাথে হয়েছে পাকা কথা। সূত্রের খবর সব ঠিক থাকলে চলতি বছরের শেষেই বাগদান সেরে ফেলবেন এই নতুন জুটি। এরপর আগামী বছর অর্থাৎ ২০২২ সালে ভালো দিনক্ষণ দেখে একে অপরের সাথে সাতপাক ঘুরবেন তাঁরা। এমনিতে বরাবরই ডেস্টিনেশন ওয়েডিংয়ের ইচ্ছা অভিনেত্রীর। বেড়াতেও ভীষণ ভালবাসেন। তবে এবার নিজের বিয়ের জন্য কোন ডেস্টিনেশন তাঁর পছন্দ হয় সেটাই দেখার।

এমনিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়ই অ্যাকটিভ থাকেন অভিনেত্রী। নিত্যনতুন ছবি পোস্ট করে ঝড় তোলেন অনুগামীদের হৃদয়ে। কিন্তু সেখানে কখনও অভিনেত্রীর ব্যক্তিগত সম্পর্ক নিয়ে কোনো আভাস মেলেনি। এমনকি এপ্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমে ঋতাভরী সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, এটা তাঁর ব্যক্তিগত জীবন, তাই এই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চান না তিনি।

উল্লেখ্য মার্চ-এপ্রিল মাসে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন ঋতাভরী। তাঁকে শেষবার দেখা গিয়েছে ‘ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি’ সিনেমায় । এই সিনেমায় সাফল্য লাভের পর অসুস্থ অবস্থাতেই অঙ্কুশের সঙ্গে ‘এফআইআর’ ছবিতে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী। এছাড়াও ‘থপ্পড়’ খ্যাত অভিনেতা পাভেল গুলাটির সঙ্গে মিউজ়িক ভিডিয়ো ‘সাওন’ করেছেন ঋতাভরী।

Related Articles

Back to top button