জেনে নিন চটজলদি রিফ্রেসমেন্ট ডিংঙ্কস্ বানানোর প্রক্রিয়া


শীতের আমেজ কাটতে না কাটতেই, মাস ফাল্গুনেই গ্রীষ্মের দাপটে নাজেহাল আমজনতা। কাল শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি বেশি এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২২.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। চৈত্র না আসতেই যদি এত তাপ, তাহলে চৈত্র-বৈশাখ এলে কেমন পরিস্থিতি হবে? তবে এই প্রশ্নের উত্তর ভাবতে গেলে চিন্তার আর শেষ থাকবে না, তাই প্রচন্ড গরমের দাপট থেকে বাঁচতে শরীর ঠান্ডা রাখুন। ঘরে খুব সহজে বানিয়ে ফেলুন রেস্তোরাঁর নানান রিফ্রেসমেন্ট ডিংঙ্কস্ (Refreshment Drinks)।

১. ফ্রেশ লাইম সোডা (Fresh Lime Soda) :

হাতের কাছে সমস্ত উপকরণ থাকলে অবশ্যই পাঁচ মিনিটের বেশি সময় আপনার লাগবে না এই পানীয়টি তৈরি করতে। তাই চটপট জেনে নিন এক গ্লাস ফ্রেশ লাইম সোডা বানাতে আপনার কী কী উপকরণ দরকার :

Fresh Lime Soda Drinks

পাতিলেবুর রস (অর্ধেক পাতিলেবু)

চিনি গুঁড়ো (২ চামচ)
জল (এক গ্লাস)
সোডা ওয়াটার (এক কাপ)
জিরা গুঁড়ো (এক চামচ)
বিটনুন (সামান্য)
পুদিনা পাতা
আইস কিউব (নিজের পছন্দ মতোন)

পদ্ধতি :

একটি জুসার মিক্সারে পাতিলেবুর রস, পরিমান মতোন জল, জিরা ও চিনির গুঁড়ো এবং একদম সামান্য বিট লবন মিশিয়ে ভালো করে মিক্স করে নিন। এরপর একটি গ্লাসে মিক্স করা মিশ্রণটি ঢেলে তাতে সোডা ওয়াটার দিয়ে, একটি চামচ দিয়ে ভালো করে নাড়িয়ে নিন। এরপর এতে আইস কিউব দিয়ে, ওপর থেকে পুদিনা পাতা দিয়ে সাজিয়ে ঠান্ডা ঠান্ডা পরিবেশন করুন ফ্রেশ লাইম সোডা।

২. ভার্জিন মজিতো (Virgin Mojito) :

এই পানীয়টি ঘরে  বানানো একদমই সহজ।

Virgin Mojito

উপকরণ বিশেষ কিছু নয় :

এক গ্লাস স্প্রাইট
দুটো পেপারমিন্ট ট্যাবলেট (POLO, মুদিখানা দোকানে খুব সহজেই পেয়ে যাবেন)
গোল করে কাটা পাতিলেবু
কয়েকটি পুদিনা পাতা
আইস কিউব

পদ্ধতি :

প্রথমে ওই পেপারমিন্ট ট্যাবলেট দুটি গুঁড়ো করে নিন। এবং চারটি পুদিনা পাতা ভালো করে ধুঁয়ে তা একটু থেতো করে নিন (পুরোপুরি থেতো নয়)। এরপর একটি গ্লাসে প্রথমে গুঁড়ো করা ওই ট্যাবলেট দিন, এরপর থেতো করা পুদিনা পাতা দিন। সাথে সাথেই এতে স্প্রাইট দিন। একটি চামচ দিয়ে একবার নাড়িয়ে নিন (ট্যাবলেট এবং স্প্রাইটের সংমিশ্রনে অনেকটা ফ্যানা পড়তে পারে তবে তা দেখে চিন্তার কোনো কারণ নেই)। এরপর গোল করে কাটা লেবুর গ্লাসে দিয়ে, কয়েকটি বরফের টুকরো দিয়ে পরিবেশন করুন হুবহু রেস্তোরাঁর স্বাদে ভার্জিন মজিতো।

৩. ওয়াটারমেলন মজিতো (Watermelon Mojito) :

বাঙালীদের কাছে পাতিকথায় এটি তরমুজের সরবত।

Watermelon Mojito

এটি তৈরী করতে প্রথমে তরমুজকে ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নিন, যাতে বীজ গুলো ছাড়াতে সুবিধা হয়। এরপর বীজ ছাড়ানো তরমুজের টুকরো গুলি জুসার মিক্সারে দিয়ে, তাতে হাফ চামচ চিনির গুঁড়ো এবং সামান্য বিট নুন দিয়ে ভালো করে মিক্স করে নিন। এরপর একটি গ্লাসে কয়েক টুকরো বরফ দিয়ে, তার উপরে এই মিশ্রণটি ঢেলে, উপর থেকে একদম সামান্য চাট মশলা দিয়ে পরিবেশন করতে পারেন ওয়াটারমেলন মজিতো।

৪. ভ্যানিলা স্মুদি (Vanilla Smoothie) :

Vanilla Smoothie

একটি জুসার মিক্সারের পাত্রে প্রথমে ছয় চামচ ভ্যানিলা আইসক্রিম, কয়েক টুকরো বরফ এবং দুই চামচ চকোলেট সিরাপ ও এক ড্রপ ভ্যানিলা এসেন্স দিয়ে মিক্স করে নিন। এরপর একটি গ্লাসে এই মিশ্রণটি দিয়ে, উপরে এক চামচ আইসক্রিম দিয়ে উপভোগ করুন ভ্যানিলা স্মুদি।

এছাড়াও ডাবের সরবত, আখের রস, গুড় ভেজানো জল, অরেঞ্জ জুস, নুন চিনির জল প্রভৃতিও আপনি খুব সহজেই চটজলদি উপভোগ করতে পারেন।


Like it? Share with your friends!

591
591 points