বিনোদন

রাজনীতিতে অরিজিৎ সিং! ব্রাত্য বসুর উপস্থিতিতে জিয়াগঞ্জের স্কুলের সভাপতিত্বের ভার পেলেন গায়ক

আজকালকার দিনে ‘সামান্য’ টেলি তারকাদেরও অহংকারে মাটিতে পা পড়েনা, অনুরাগীদের মাঝেমধ্যে মানুষ বলেও মনে করেন না তারা৷ অথচ সারা বিশ্বে যার জয়জয়াকার সেই অরিজিৎ সিং (Arijit Singh) এর জীবন চর্যা আর চর্চা দেখলে শ্রদ্ধায় মাথা নত হয়ে আসে। রথী- মহারথীরা বলে থাকেন সাফল্য আসলেও মাটিতে পা থাকাটা জরুরি, নইলে গগনচুম্বী সাফল্য যে কখন মাটিতে এনে দাঁড় করাবে তার হৃদিশ পাওয়াও কঠিন হয়ে পড়বে। এই কথা যেন নিজের মনে গেঁথে নিয়েছেন দেশের প্রথম সারির জনপ্রিয় গায়ক অরিজিৎ সিং।

হিল্লিদিল্লি ঘুরে এলেও জিয়াগঞ্জে পা রাখা মাত্রই তারকা সত্তার জ্যাকেট খুলে সাধারণ টিশার্টে তিনি হয়ে ওঠেন এক্কেবারে গ্রামের ছেলে, মাটির মানুষ। কখনও স্ত্রী কোয়েলকে স্কুটিতে চাপিয়ে ভোট কেন্দ্রে যাওয়া হোক কিংবা ছেলেকে জিয়াগঞ্জের স্কুলে ভর্তি করা হোক হাজার সাফল্যের পরেও অরিজিৎ নিজের মাটি ভুলে যাননি।

এবার সেই সূত্রেই নিজের এলাকার গুরু দায়িত্ব পেলেন গায়ক। মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জের রাজা বিজয় সিংহ বিদ্যামন্দিরের স্কুল কমিটির সভাপতি মনোনীত হলেন অরিজিৎ। এই স্কুলেই অরিজিৎ এর শৈশব কেটেছে, সেকথা ভোলেন কীভাবে গায়ক? সেখান থেকে প্রাপ্ত শিক্ষাই তাকে দেশের মুখ উজ্জ্বল করার সাহস জুগিয়েছে, শিখিয়েছে মানুষ হতে। তাই হাজার ব্যস্ততার মাঝেও এই দায়িত্ব অস্বীকার করলেন না গায়ক।

জিয়াগঞ্জের রাজা বিজয় সিংহ বিদ্যামন্দিরের প্রধান শিক্ষক দীপঙ্কর ভট্টাচার্য জানান অরিজিৎ এত বড় একটি ভার গ্রহণ করায় তারা খুশি। রাজ্য সরকারের কাছে অনুমতি নিয়েই এহেন সিদ্ধান্ত বলে জানান তিনি। শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর উপস্থিতিতে ১৩ তারিখে তিনি ভার গ্রহণ করেছেন এবং স্কুলের উন্নতি নিয়ে বিস্তার আলোচনা হয় বলেও জানান স্কুলের প্রধান শিক্ষক। স্কুলে পড়াকালীন নানান অনুষ্ঠানে অরিজিৎ এর গাওয়া গান আজও মনে রয়ে গিয়েছে তার শিক্ষক- শিক্ষিকাদের।

Related Articles

Back to top button