গরমে চাঙ্গা থাকতে পান করুন সুস্বাদু ও উপকারি এই দুই শরবত! জেনে নিন বানানোর পদ্ধতি


গরমে নিজের শরীর চাঙ্গা ও সুস্থ রাখতে সবার আগে দরকার অনেকটা করে জল পান করা, আর ঠান্ডা জিনিস পান করা৷ আর তার সঙ্গে বাড়তি উপকারিতা জোগায় শরবত। এই সময় বাজারে নানান রকমের ফলের সম্ভার পাওয়া যায়, যেমন তরমুজ, লেবু, আনারস। এই সমস্ত ফল দিয়েই বানানো যায় সুস্বাদু শরবত, আর এই ফলের নিজস্ব গুনাগুন শরীরের জন্যেও খুব উপকারী। রইল দুটি শরবতের গুণাগুণ এবং তৈরির পদ্ধতি।

তরমুজের শরবত

উপকরণ

তরমুজ কুচি দুই কাপ,
চিনি ২ টেবিল চামচ,
বিট লবণ আধ চা-চামচ,
পাতি লেবুর রস ২ চা-চামচ।

তৈরির পদ্ধতি-

তরমুজ কুচিগুলি থেকে বীজ বের করে নিয়ে, চিনি লেবুর রস, বিটল লবণ সহ সব উপকরণ মিশিয়ে ব্লেন্ড করে ফ্রিজে রেখে দিন আধঘণ্টা। ঠান্ডা হলে নামিয়ে এনে পরিবেশন করুন রঙিন ঠান্ডা তরমুজ শরবত।

উপকারিতা-

তরমুজে প্রচুর পরিমাণে জল, প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট, শর্করা, ভিটামিন সি পাওয়া যায়। সারা দিনের ক্লান্তি ও দুর্বলতা কাটাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে এই শরবত। আবার টাইফয়েড জ্বরের তীব্রতা কমাতেও ভূমিকা রাখে তরমুজ। পুরুষের বন্ধ্যত্ব ঘুচাতেও তরমুজের জুড়ি মেলা ভার। এছাড়া তরমুজ শরীর ঠান্ডা রাখে।

লেবু ও আদার শরবত

উপকরণ-

লেবু দুটি,
আদার রস ২ টেবিল চামচ,
পুদিনা পাতা কুচি ২ টেবিল চামচ,
চিনির সিরাপ এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, বরফ কুচি পরিমাণমতো।

তৈরির পদ্ধতি-

একটি পাত্রে ২ টুকরো লেবু চিপে সিরাপ দিয়ে শরবত তৈরি করে নিন। আদা কিউব করে কেটে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। অথবা থেঁতলে নিন। এরপর আদার রস ওই শরবতে মিশ্রনে মিশিয়ে দিন। শেষে বরফ কুচি, জল, পুদিনা পাতা ও লেবু চারকোনা করে কেটে গ্লাসে দিয়ে আধঘণ্টা রেখে দিন।

উপকারিতা-

আদা গ্যাসের সমস্যা, সর্দি, কাশি, গায়ে হাত পায়ের ব্যথা দূর করে। এ ছাড়া ক্যানসার, বমি বমি ভাব, রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে এই শরবত।

 


Like it? Share with your friends!

648
648 points