বিনোদনসিরিয়াল

সিরিয়ালের দৃশ্যগুলি কি আদেও বাস্তবে ঘটে, নাকি শুধুই বিনোদন!

যতদিন যাচ্ছে ততই যেন মানুষের সিরিয়ালের প্রতি আকর্ষণ বেড়েই চলেছে। বিশেষত সন্ধ্যে থেকে রাত অবধি বাড়ির মা- ঠাকুমাদের হাতে থাকে টিভির কন্ট্রোল। স্টার-জলসা, জি-বাংলা, কালার্স-বাংলা এমনি অন্যান্য হিন্দি চ্যানেলের সিরিয়ালগুলি যেন রীতিমতো গুলে খাওয়া তাঁদের। আজকাল দিনে মানুষ বইপ্রেমী থেকে সরে গিয়ে সিরিয়াল প্রেমী অথবা সোশ্যাল মিডিয়া প্রেমী হয়ে উঠেছে।

৮ থেকে ৮০ সোশ্যাল মিডিয়া সকলে ভালোবাসি। এটাই যেন মূলমন্ত্র হয়ে উঠেছে সকলের কাছে। তবে, এই সিরিয়াল কি সমাজেরই প্রতিফলন নাকি শুধুই মনোরঞ্জন তাঁর ব্যাখ্যা কারোর কাছেই নেই। আমাদের আসেপাশে চোখ রাখলে দেখা যায় যে, হাতেগোনা কয়েকটা মানুষের দুটো বিয়ে। কিন্তু সিরিয়ালের পর্দায় চোখ রাখলেই দেখা যায় যে প্রায় প্রতিটি সিরিয়ালেই দুটো করে বিয়ে।

এমনকি এও দেখা যায় যে, ঘরে বিবাহিত বউ থাকা সত্ত্বেও লোকটি দিনের পর দিন বাইরে অন্য কোনো মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক রেখে চলেছে। কিন্তু তাঁর বউ বাড়ির কাজে দক্ষ, নিপুনা হলেও এমনকি কঠিন পরিস্থিতি বুদ্ধি দিয়ে সামাল দিলেও তাঁর স্বামী যে, তাঁর সঙ্গে ভালোবাসার নাটক করে চলছে তা কিছুই বুঝতে পারে না। আচ্ছা বাস্তব জগতে দাঁড়িয়ে এটাও কি কোনো ভাবে সম্ভব? কি মনে হয় আপনাদের বলুন তো?

এমনকি সিরিয়ালে এও দেখানো হয় যে, বাড়ির পরিস্থিতি যতই খারাপ হোক না কেন কারোর সাজগোজের কিন্তু কোনো কমতি থাকে না। সকলেই দিব্বি পরিপাটি ভাবে সেজে থাকেন। বেশিরভাগ পুরুষরাই সিরিয়াল পছন্দ করেন না। সিরিয়ালের কিন্তু মূলত দর্শক মেয়েরাই। তবে, সিরিয়ালে যা দেখানো হয় তার সবটাই কি মেয়েরা গ্রহণ করেন?

শুধুমাত্র বাংলা সিরিয়ালেই নয় হিন্দি সিরিয়ালেরও এমন কনসেপ্ট দেখানো হয়। আর মানুষ ‘বোকাবাক্স’ এর সামনে বসে তা গ্রোগ্রাসে দিনের পর দিন গিলে চলেছে। তাতে মনে কতটা শান্তি আসে তা বলা না গেলেও গিন্নিদের মনোরঞ্জন যে বেশ হয় তা বলাই বাহুল্য।

 

Related Articles

Back to top button