গসিপবিনোদনসিনেমা

‘সিরিয়াল কিসার’ ইমরান হাশমি! নায়িকার মুখে অসহ্য দুর্গন্ধ, অস্বস্তি চেপে করেছিলেন শুটিং

বলিউডের ‘কিসিং কিং’ ইমরান হাশমি (Emran Hashmi) । ভক্তদের কাছে তিনি ‘সিরিয়াল কিসার’ (Serial Kisser) বলেও সমান জনপ্রিয়। কারণ একটাই, বলিউড অভিনেতাদের মধ্যে তিনিই প্রথম নায়ক যিনি অন ক্যামেরা অভিনেত্রীদের সাথে ঘনিষ্ঠ দৃশ্য থেকে শুরু করে ঠোঁটে ঠোঁট গুঁজে বোল্ড সিনে অভিনয় করার ট্রেন্ড চালু করেছিলেন। যা আজকালকার দিনের সিনেমা থেকে ওয়েব সিরিজ সবেতেই একেবারে জলভাত।

সেদিক দিয়ে দেখতে গেলে এই ‘গ্যাংস্টার’ অভিনেতা ইমরান হাশমির হাত ধরেই একটা সময় সাবালক হয়েছে বলিউড। এক্ষেত্রে প্রথমেই ইমরান অভিনীত যে সিনেমাটির কথা সবার মনে আসবে সেটি নিঃসন্দেহে ২০০৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ইমরান হাশমি এবং তনুশ্রী দত্ত অভিনীত ‘আশিক বানায়া আপনে’। এই সিনেমায় ইমরান এবং তনুশ্রীর হট সিন দেখে আজও রীতিমতো ঘাম ঝড়তে থাকে দর্শকদের।

নিজের অভিনয় জীবনে অসংখ্য সুন্দরী অভিনেত্রী দের সাথে পর্দায় চুটিয়ে রোম্যান্স করেছেন ইমরান। বরাবরই অন ক্যামেরা এই ধরনের বোল্ড সিনেও দারুন সাবলীলভাবে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে অভিনেতা কে। তবে সব অভিনেতাই নিজের পেশার কাছে চূড়ান্ত দায়বদ্ধ। একথা একবাক্যে স্বীকার করবেন যে কেউ।

এই পেশাটাই এমন যে একবার ক্যামেরা অন হলে যে, যে ধরনের মানসিক পরিস্থিতিতেই থাকুন না কেন শট তাকে সম্পূর্ণ করতেই হবে। সিনেমার ভাষায় বলতে গেলে ‘দ্য শো মাস্ট গো অন।’ প্রসঙ্গত একবার সিনেমার শুটিং চলাকালীন এমনই এক অদ্ভুত পরিস্থিতির মুখে পড়েছিলেন বলিউড অভিনেতা ইমরান হাশমি। সম্প্রতি অভিনেতার এক পুরনো সাক্ষাৎকারের দৌলতে চর্চায় উঠে এসেছে সেই কাহিনী।

ইমরান হাশমি Imraan Hashmi

এমনিতে ইমরান হাশমির সিনেমা মানেই চুম্বন দৃশ্য থাকা মাস্ট। জানা যায় তেমনই একবার চুম্বন দৃশ্যের শুটিং করতে গিয়ে মহা বিপদে পড়েছিলেন ইমরান। জানা যায় সেবার কিসিং সিন করতে গিয়ে ইমরান অনুভব করেন তার সহ অভিনেত্রীর মুখ দিয়ে অসহ্য দুর্গন্ধ বের হচ্ছে। কিন্তু লাইট ক্যামেরা অন থাকায় নিজের অস্বস্তি চেপে রেখেই শুটিং শেষ করেছিলেন ইমরান। তবে কে সেই অভিনেত্রী আজও তার নাম প্রকাশ্যে আনেননি অভিনেতা।

Related Articles

Back to top button