গসিপগানবিনোদনসিনেমা

ন্যাকা নয়! একেবারে অন্য মোড়কে বড়পর্দায় আসছে অঞ্জন দত্তের আইকনিক চরিত্র বেলা বোস

বাংলার জনপ্রিয় গায়ক , পরিচালক আবার একাধারে অভিনেতা অঞ্জন দত্তের (Anjan Dutta) কালজয়ী সৃষ্টি গুলির মধ্যে অন্যতম হল তাঁর কল্পনায় তৈরি গানের দুটি জনপ্রিয় চরিত্র রঞ্জনা আর বেলা বোস (Bela Bose)। ইতিমধ্যেই যার একটি তাঁর হাত ধরেই ফুটে উঠেছিল রূপালী পর্দায়। ২০১১ সালের ২৪ শে জুন প্রযোজক রানা সরকারের (Rana Sarkar) উদ্যোগে বড় পর্দায় জীবন্ত হয়ে উঠেছিল অঞ্জন দত্তের কল্পনার রঞ্জনা। অন্যদিকে এই ‘রঞ্জনা আমি আর আসব না’ সিনেমা দিয়েই অভিনয় জগতে হাতেখড়ি হয়েছিল অভিনেত্রী পার্নো মিত্রের(Parno Mitra)।

এবছরই দশ বছরে এই জনপ্রিয় সিনেমাটি। সেই উপলক্ষেই এবার আরও এক বড় চমক দিতে চলেছেন পরিচালক অঞ্জন দত্ত এবং প্রযোজক রানা সরকার। সব ঠিক থাকলে এবার খুব শীঘ্রই বড়পর্দায় আসতে চলেছে গায়ক-পরিচালক অঞ্জন দত্তের গানের আইকনিক চরিত্র বেলা বোস, অঞ্জন দত্তের বেলা বোস! বেলা বোস মানেই ‘এটা কি ২৪৪-১১-৩৯’। আপামর বাংলা তথা বাঙালিদের কাছে এমনই একটা ইমোশন যে এই গানটির সাথে সাথেই চরিত্রটির জনপ্রিয়তাও রাজ্যের গন্ডী পেরিয়ে গোটা বিশ্বের সংগীতপ্রেমী বাঙালিদের কাছে সাতাশ বছর পার করে আজও অমলিন।

Anjan Dutta 2441139 Bela Bose tumi parcho ki sunte

জানা গেছে শুধুমাত্র প্রযোজক রানা সরকারের উদ্যোগে সাড়া দিয়েই বেলা বোসকে বড়পর্দায় আনতে রাজি হয়েছেন অঞ্জন দত্ত। তবে সেইসাথে তিনি একথাও স্বীকার করেছেন যে তাঁর নিজেরও বহুদিনের ইচ্ছে এবং তাগিদ ছিল বেলা বোসকে বড় পর্দায় নিয়ে আসার। তবে একাজে চ্যালেঞ্জও আছে বিস্তর। এপ্রসঙ্গে এই গানের স্রষ্টা সংবাদমাধ্যমে বলেছেন ‘ভীষণ কঠিন! তবে চ্যালেঞ্জটা আমি নিচ্ছি। ৬৬ বছর বয়সে এসেও যে এই চ্যালেঞ্জটা নিতে পারছি তার কারণ রানা সঙ্গে আছে বলেই।’

Anjan Dutta 2441139 Bela Bose tumi parcho ki sunte

ছবির নাম দেওয়া হচ্ছে ‘বেলা বোসের জন্য'(Bela Boser Jonnyo)। তবে এই আইকনিক চরিত্রে দর্শকরা কাকে দেখতে সেই জল্পনা জিইয়ে রেখেই প্রযোজক রানা সরকার জানিয়েছেন ‘এখনও সে সব ঠিক হয়নি। পার্নোও থাকতে পারেন। অন্য কেউ আসতে পারেন।’ তবে সেইসাথে তাঁর আরও সংযোজন ‘আগের ছবির মতো এই ছবিতেও নায়ক নাও থাকতে পারেন। তবে অঞ্জন দত্ত থাকবেন।’

তবে সিনেমার বেলা বোস প্রসঙ্গে পরিচালক অঞ্জন দত্ত জানিয়েছেন ‘গায়ক’ অঞ্জনের গানে এতদিন বেলাকে যেমন ভেবে এমন জেনে এসেছে শ্রোতা, ছবির বেলায় বেলা সেরকম ন্যাকা একেবারেই নয়।সোশিও পলিটিক্যাল প্রেক্ষাপটে বেলাকে সম্পূর্ণ অন্যরকম বেলা বোসের দেখা পেতে চলেছেন দর্শক। সেখানে টেলিফোন থেকে শুরু করে প্রেম সবটাই থাকবে, তবে তা সম্পূর্ণ নতুন এক মোড়কে পেশ করা হবে দর্শকের কাছে। আরও জানা গেছে যে বেলা বোসের জন্য’ ছবির সুরকারের দায়িত্বে থাকছেন নীল দত্ত।

Related Articles

Back to top button