১৫ মিনিটেই গর্ভবতী হয়ে বাচ্চা প্রসব ইন্দোনেশিয়ান মহিলার, তাজ্জব নেটবাসী


পৃথিবীর আনাচ- কানাচ থেকে আমারা মাঝে মধ্যেই নানান অদ্ভুত ঘটনা শুনতে পারি। কিছু কিছু ঘটনা যা আমাদের সত্যিই রীতিমতো অবাক করে দেয়। আমরা বুঝতেও পারিনা আদেও সেসব ঘটনা পৃথিবীতে ঘটে নাকি। আবার অনেকেই আছেন এসব ঘটনাকে মিথ্যে গুজব বলে পাত্তাই দেন না। কিন্তু যাঁরা সামনে থেকে এই ঘটনাকে প্রত্যক্ষ করেছে তাঁদের এর সত্যতার ব্যাপারে নতুন করে জানাতে হয় না।

সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়ার (Indonesia) এক মহিলা এক অদ্ভুত দাবি করেছেন। আর তাঁর দাবি শুনে অবাক হবেন আপনিও। মহিলা দাবি করেছেন যে, তিনি বাতাসের দ্বারা গর্ভবতী হয়েছেন। স্থানীয় একটি সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় মহিলা জানিয়েছেন যে, তিনি কোনো পুরুষের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক তৈরি করেননি। হটাৎই তিনি ভাসমান বাতাসের দ্বারা গর্ভবতী হয়ে পড়েন।

মহিলার এই অদ্ভুত দাবি অনুসারে, তিনি বিকেলে নামাজ শেষে নিজের বসার ঘরে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। আর তারপর হটাৎই তিনি অনুভব করেন যে, তাঁর শরীরে বাতাস প্রবেশ করেছে। আর এই ঘটনার ১৫ মিনিট পর তার পেট ব্যাথা হতে শুরু করে এবং তার পেট বড় হতে শুরু করে। তারপর মহিলাটিকে পাশের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর তিনি একটি স্বাস্থকর মেয়ের জন্ম দেন।

Indonesian Woman Pregnent by wind

মহিলাটির এই উদ্ভট গল্প শোনা মাত্রই মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল (Viral) হয়ে যায়। এরপর স্থানীয় কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রধান মহিলাটির কাছ থেকে বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজখবর নিতে যান। আর তারপর তিনি জানতে পারেন যে, মহিলার বিয়ে হয়েছে। কিন্তু এখন তিনি স্বামীর থেকে আলাদা থাকেন। ইতিমধ্যেই তাঁর একটি বাচ্চা মেয়েও রয়েছে। কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রধান ইমন সুলেমান বলেছিলেন যে, তদন্তের সময় দেখা গেছে যে, মা এবং শিশু উভয়েই সুস্থ আছেন। নরমাল ডেলিভারি হয়েছে।

Indonesian Woman Pregnent by wind

সুলেমান বলেছিলেন যে, এটি গোপন গর্ভাবস্থার একটি ঘটনা বলে মনে করা হচ্ছে। যেখানে মহিলার প্রসবের আগে তার গর্ভাবস্থা অনুভব হয় না। তবে, এই ঘটনার ব্যাপারে স্থানীয় পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। এমনকি মহিলার আগের বিবাহ সহ সকল দিকই তদন্ত করা হচ্ছে।


Like it? Share with your friends!

631
631 points